নেত্রকোনা স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধারের জন্য আদালতে মামলা

আপডেটঃ ১১:৫৯ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৮, ২০২১

নেত্রকোণা (কলমাকান্দা )প্রতিনিধি : নেত্রকোনা জেলা কলমাকান্দা উপজেলার সন্ধ্যাহলা গ্রামের পাচকাটা বাজারে সংলগ্ন মো: আকবর আলী মেয়ে নবম শেণীর স্কুল ছাত্রী কে নিয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছে । ছাত্রী মা জামিলা খাতুন বাদী হয়ে। নেত্রকোনা আদালতে এই মামলার করেন। পরে তদন্তের জন্য কলমাকান্দা থানায় মামলা আমলে নেন। মামলার বিবরনে জানা যায় কলমাকান্দা উপজেলার সন্ধ্যাহলা পাচকাটা বাজার সংলগ্ন স্বরনিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শেণীতে পড়–য়া ছাত্রীর মোবাইলে ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয় একই উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের ফুলবাড়ি কান্দাপাড়া গ্রামের আ: ছালাম এর ছেলে মো: শাহীন মিয়া সাথে। সেই পরিচয়ের সুবাদে ছাত্রী সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করে মো: শাহীন মিয়া। পরে ছাত্রী তার মা জামিলা খাতুনকে জানাইলে ছাত্রী মা জামিলা খাতুন মোবাইল ফোনে আসামী মো: শাহীন মিয়া কে জামিলা খাতুন তার মেয়ে নবম শেণীর ছাত্রী কে উৎপাত না করার জন্য বলে। কিন্তু ছাত্রী মা জামিলা খাতুনের কথা রাখেনি আসামী মো: শাহীন মিয়া। এর পর ছাত্রী মা জামিলা খাতুন আসামী শাহীন মিয়া অভিবাবককে জানাইলে তাহারাও ঘটনার বিষয়ে কোন কর্ণপাত করে নাই , মামলায় থেকে আরও জানা যায় যে ঘটনার দিন ঘটনার স্থলে পৌছা মাত্র আসামী মো: শাহীন মিয়া ও একই মামলার আরেক আসামী উমেদ আলী মিস্ত্রীর ছেলে মো: জমির আলী আসামী সহযোগীতায় অপরিচির আরও তিন, চারজন লোক জোরপূর্বক অপহরন করে সিএনজি যোগে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় আটকিয়ে রাখিয়া তাহার ইচ্ছা বিরুদ্ধে জোর পৃৃর্বক ধর্ষণ করে। এনিয়ে মামলার বাদী বলেন এখনো আমার মেয়ে কে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এ ব্যাপারে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মাহমুদা শারমিন নেলী বলেন, বাদী এবং সাক্ষীদের কথা বলছি এবং ভিকটিম মেয়েটি তার বাদীর বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছে।