টিকা নিয়ে কোনো চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে না দেশ: মীরজাদী সেব্রিনা

আপডেটঃ ৭:৪৪ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৩, ২০২১

সিএনএ প্রতিবেদক: টিকা নিয়ে বড় কোনো চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশকে পড়তে হবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি বলেন, টিকা পাওয়ার ব্যাপারে আমাদের যে চ্যালেঞ্জ ছিলো তা মোটামুটি ওভারকাম করে উঠেছি। ইতোমধ্যে ৪৫ লাখ ডোজ টিকা এসে গেছে। আমরা আশা করছি এ সপ্তাহে ও পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে আরও টিকা আসবে। আমরা বিভিন্ন সোর্স থেকে টিকা কেনা এবং পাশাপাশি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মাধ্যমেও টিকা পেতে শুরু করেছি।

আজ মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বেলা ১১টায় সিটি করপোরেশনের আয়োজনে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ কেন্দ্রে গণটিকা কর্মসূচি পরিদর্শনে এসে এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ডা. মীরজাদী সেব্রিনা আরও বলেন, এখন যে হারে কোভিড সংক্রমণ বাড়ছে সবার টিকা নেওয়াটাই সংক্রমণ প্রতিরোধের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। আমরা চাচ্ছি যতদ্রুত সম্ভব যতো বেশিসংখ্যক মানুষকে টিকা দেওয়া যায়। আমরা সেভাবেই কাজ করছি।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা প্রথম ডোজ পেলেও অনেকে দ্বিতীয় ডোজ না পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে এ মাসেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা এসে যাবে। আসার পরপরই যারা দ্বিতীয় ডোজ পায়নি তাদের দেওয়া হবে।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক বলেন, আমরা সবাই যদি স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে মানতাম ও সঠিকভাবে মাস্ক পরতাম তাহলে সংক্রমণ অনেকখানি নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হতো। তিনি স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন। আমরা নিজেরা নিজেদের সুরক্ষিত রাখলেই কোভিড নিয়ন্ত্রণ রাখা সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, আমরা যতই সক্ষমতা বৃদ্ধি করি না কেন রোগী কমাতে না পারলে কোনো কাজ হবে না। এক্ষেত্র সাধারণ জনগোষ্ঠীর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

এ সময় ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু বলেন, নগরীর চারটি পয়েন্টে টিকাদান কর্মসূচি চলছে। আমাদের সব প্রস্তুতি রয়েছে। সবাই টিকা গ্রহণ করে নিজেকে এবং অন্যকেও ভালো থাকতে সাহায্য করতে হবে।

পরিদর্শনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. ফজলুল কবীর, সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. জাকিউল ইসলাম, করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান মুন প্রমুখ।