সাবেক ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী’র সব সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

আপডেটঃ ৫:২২ অপরাহ্ণ | জুন ২৯, ২০২১

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলার আসামি বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকির স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোক করে রিসিভার হিসেবে গ্রহণ করার জন্য চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের জেলা প্রশাসককে আদেশ দিয়েছে আদালত।

দুদকের দায়ের করা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় মঙ্গলবার সকালে মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত এ আদেশ দেয়।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়- ‘ঘুষ ও দুর্নীতির’ মাধ্যমে অর্জিত অর্থ গোপন করার জন্য প্রদীপ কুমার দাশ নগরীর কোতোয়ালী থানার পাথরঘাটা এলাকার একটি ছয়তলা বাড়ি শ্বশুরের নামে নির্মাণ করেন। পরবর্তীতে বাড়িটি ‍চুমকির নামে দান করেন প্রদীপের শ্বশুর। দানপত্র দলিল হলেও বাড়িটি প্রদীপ দাশ ও তার স্ত্রী চুমকি কর্তৃক অর্জিত বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

এছাড়া আয়কর রিটার্নে আসামি চুমকির কমিশন ব্যবসা এবং বোয়ালখালী উপজেলায় ১০ বছরের জন্য লিজ নেয়া পাঁচটি পুকুরে মাছের ব্যবসার যে আয় দেখানো হয়েছে তাও স্বামী প্রদীপ দাশের অপরাধলব্ধ অর্থ স্থানান্তর, রূপান্তর ও হস্তান্তরের উদ্দেশ্যে ভুয়া ব্যবসা প্রদর্শন করে দেখানো হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করে দুদক।

গত বছরের ২৩ অগাস্ট দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্টগ্রাম-২ এর সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে ওসি প্রদীপের অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলাটি করেন। মামলায় ওসি প্রদীপের সঙ্গে তার স্ত্রী চুমকিকেও আসামি করা হয়েছে।