নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় ৯ বছর বয়সের শিশু ধর্ষণ মামলা হওয়ার পরেও আটক হয়নি কেউ

আপডেটঃ ৫:০৮ অপরাহ্ণ | জুন ২৯, ২০২১

নেত্রকোণা প্রতিনিধি: নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বহুলী গ্রামের গত ১১-০৫-২০২১ ইং মঙ্গলবার (৯) বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত নেত্রকোনায় ১৩-০৫-২০২১ ইং তারিখে যার মুকাদ্দামা নং ৩৫৮/২০২১ মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলা হওয়ার পরেও এখন পর্যন্ত আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। মামলার আসামি শওকত মিয়া অবাধে ঘোরাফেরা করছে এবং ঝর্ণা আক্তার ও তার পরিবারের মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে মামলার বাদী ঝর্ণা আক্তার বলেন, আমি মামলা করার পর থেকে আমি আমার বাড়িতে থাকতে পারিনা আমাকে অত্যাচার-নির্যাতন করছে । আমি একজন অসহায় এবং বিধবা মহিলা। আমার স্বামী বিগত ২ বছর পূর্বে ৪ সন্তান রেখে মৃত্যুবরণ করেন। আমার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকেই আমার ওপর অত্যাচার-নির্যাতন করে। আমি স্থানীয় প্রশাসনের কাছে আমার ৯ বছরের মেয়েকে ধর্ষণের প্রতিবাদে সুস্তু বিচার দাবি করছি এবং আমি যেন আমার বাড়ি ঘরে থাকতে পারি এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে সুদৃষ্টি কামনা করছি।আমার মেয়ে বহুলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।

এ ব্যাপারে কেন্দ্র থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, মামলা হয়েছে, মেডিকেলও হয়েছে তদন্তের কাজ প্রক্রিয়াধিন আছে।