ইস্তাম্বুলের ঐতিহাসিক ‘তাকসিম স্কয়ার মসজিদ’ উদ্বোধন এরদোয়ানের

আপডেটঃ ২:০৪ অপরাহ্ণ | মে ২৯, ২০২১

ধর্ম ডেস্ক: তুরস্কের ইস্তাম্বুলে তাকসিম স্কয়ারে একটি মসজিদ উদ্বোধন করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। এই মসজিদ নির্মাণ নিয়ে ২০১৩ সালে উদারপন্থীদের বিরোধীতার মুখে পড়তে হয়েছিল এরদোয়ান সরকারকে। শুক্রবার মসজিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেয় হাজার হাজার মানুষ। মসজিদে জায়গা না পেয়ে চত্বরে বসে নামাজ পড়েন অনেকে।

মসজিদটি এমনভাবে নির্মাণ করা হয়েছে যার সাথেই আছে খোলা চত্বর যেটিকে ঐতিহাসিকভাবে ধর্মনিরপেক্ষ তুরস্ক প্রজাতন্ত্রের প্রতীক মনে করা হয়। মূলত এটি তুর্কি প্রজাতন্ত্র এবং এর প্রতিষ্ঠাতা মোস্তফা কামাল আতাতুর্কের একটি স্মারক হিসেবে বিবেচিত হয়।

শুক্রবার মসজিদটির উদ্বোধন করে জুমার নামাজের পর এরদোয়ান বলেন, ‘তাকসিম মসজিদ এখন ইস্তাম্বুলের স্মারকগুলোর মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায’।

মসজিদের উদ্বোধনের সময় জুমার নামাজ পড়তে আসা বিপুল সংখ্যক মানুষের উদ্দেশ্যে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, প্রতিবাদ বিক্ষোভের বিরুদ্ধে মসজিদ নির্মাণ করতে পারা একটি বিজয়।কোন কিছুই এ উদ্যোগকে বন্ধ করতে পারবে না।

এরদোয়ান নব্বইয়ের দশকে ইস্তাম্বুলের মেয়র থাকার সময় তাকসিম স্কয়ারে মসজিদ নির্মাণের ইচ্ছার কথা বলেছিলেন। তিনি সমবেত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘এখানে নামাজ পড়ার জন্য একটি কক্ষ পর্যন্ত ছিলো না এবং ধর্ম বিশ্বাসীরা খোলা জায়গায় পত্রিকা বিছিয়ে নামাজ পড়তেন’।

নামাজ পড়তে আসা মানুষজন নতুন এ মসজিদের ব্যাপক প্রশংসা করেছেন যেটি আসলে নির্মিত হয়ে অটোমান সাম্রাজ্যের বৈশিষ্ট্য আর আধুনিক স্থাপত্যের সমন্বয়ে। এখানে এক সাথে প্রায় চার হাজার মানুষ নামাজ পড়তে পারবে।

আবুজের কচ নামে একজন বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলছিলেন যে, সেখানে মানুষের তুলনায় মসজিদ কম।যারা এটি বানিয়েছে আল্লাহ তাদের মঙ্গল করুন।

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ হলেও তুরস্কের ধর্ম নিরপেক্ষ ভিত্তি থেকে সরে আসার জন্য এরদোয়ানের সমালোচনা করেন অনেকে। তাকসিম চত্বর ধর্ম নিরপেক্ষ তুরষ্কের অন্যতম স্মারক হিসেবে বিবেচিত হয়। তাকসিম স্কয়ারের গাজি পার্কে ২০১৩ সালে যখন এই মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছিলো তখন সেখানে এর প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছিলো।