বাউফলে মুক্তিযোদ্ধার বসত ঘরে হামলা,আহত-৩

আপডেটঃ ৮:৪৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৯, ২০২১

বাউফল প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর বাউফলের মদনপুরা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম তালুকদারের বসত বাড়িতে হামলা করে দরজা-জানালা ভাংচুর এবং স্ত্রীকে টেনে হিচরে মারধর ও শ্লীলতাহানি করার ঘটনায় গত তিনদিনেও এজাহার নেয়নি বাউফল থানা। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি আতংকে দিনাতিপাত করছে। পৌরশহরের কুন্ডুপট্রি এলাকায় গত ১৬ এপ্রিল বিকালে এ ঘটনাটি ঘটেছে। সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাগেছে, পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কুন্ডপট্টি এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম তালুকদার পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করেন। পাশেই একই এলাকার মোঃ সামছুল হক তালুকদার বসবাস করেন। সোমবার পূর্ব বিরোধের জের ধরে মোঃ সামছুল হক তার লোকজন নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম তালুকদারের বসত ঘরে ঢুকে আসবাপত্র ভাংচুর করে প্রায় ৯৫ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে। এসময় সে বাধা দিলে তাকে পিটিয়ে জখম করে। স্বামীকে বাচাতে স্ত্রী ডালিয়া ইসলাম লিপি(৫০) এগিয়ে আসলে তাকে টেনে হেচড়া শ্লীলতাহানি ঘটায়। মাকে উদ্ধারের জন্য তার মেয়ে ডাক্তার সানজিদা ইসলাম জেসমিন(২৮) এগিয়ে আসলে তাকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। পরে বাড়ির লোকজন তাদের উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমকি চিকিৎসা দেয়। এঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম তালুকদার বাদী হয়ে ১৬ এপ্রিল সন্ধায় সামছুল হককে আসামী করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করলেও গত তিনদিনেও মামলাটি এজাহার নেয়নি বাউফল থানা পুলিশ। অভিযুক্ত সামসুল হক জানান, বিষয়টি নিয়ে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খান দুই পক্ষকে নিয়ে বসবেন সিদ্ধান্ত হয়েছে। এবিষয়ে বাউফল থানা ওসি তদন্ত মোঃ আল মামুন বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

সিএনএ নিউজ/জামান