টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে রাজমিস্ত্রিকে অপহরণ ॥ একজন গ্রেফতার

আপডেটঃ ৩:০৭ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৭, ২০২১

সি এন এ প্রতিবেদক:গাজীপুরের টঙ্গী মন্ডল মার্কেট এলাকায় দাবিকৃত পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে আব্দুল জলিল (৬৫) নামে এক রাজমিস্ত্রিকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় ভূক্তভোগীর স্ত্রী মাসুদা বেগম পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অপহরণকারি চক্রের মূল হোতা নাদিম হায়দারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পুলিশ জানায়, রাজমিস্ত্রি আব্দুল জলিল স্থানীয় মন্ডল মার্কেট এলাকায় চুক্তিতে বিল্ডিং নির্মাণের কাজ করেন। চাঁদাবাজ নাদিম হায়দার কয়েকদিন পর পর জলিলের কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে আসছিল। গত বুধবার তিনি জনৈক নূর মোহাম্মদ মামুনের ফ্যাক্টরিতে কাজ করছিলেন। কাজ পাওয়ার পর থেকেই নাদিম হায়দার এবং তার সহযোগিরা আব্দুল জলিলের কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং হাত-পা ও চোখ কাপড় দিয়ে বেঁধে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় ফেলে রেখে চলে যায়। এঘটনায় আব্দুল জলিলের স্ত্রী টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলমের নেতৃত্বে একটি চৌকস দল শুক্রবার রাতভর অভিযান পরিচালনা করে অপহরণকারি চক্রের মূল হোতা নাদিম হায়দারকে গ্রেফতার করে। গতকাল শনিবার থানায় মামলা দায়ের শেষে গ্রেফতারকৃত নাদিম হায়দারকে গাজীপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।
এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম বলেন, চাঁদাবাজ নাদিম হায়দার দীর্ঘদিন যাবত বড় দেওড়া এলাকার কতিপয় যুবক ও কিশোরদের সাথে নিয়ে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ তৈরি করে ভয়-ভীতি প্রদর্শন পূর্বক চাঁদাবাজি করে আসছিল। গতকাল তাকে গাজীপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে এবং তার সহযোগিসহ এলাকায় যারা চাঁদাবাজির সাথে জড়িত তাদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

 

সিএনএ নিউজ/জামান