জীবিত ফিরলেন বাঘের হামলায় ‘নিহত’ সিরাজুল!

আপডেটঃ ৯:০৯ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৫, ২০২১

খুলনা সংবাদদাতা: খুলনার কয়রা উপজেলার গোবরা গ্রামের বাসিন্দা সিরাজুল ইসলাম সরদার। গত ১ এপ্রিল সুন্দরবেন মধু সংগ্রহের জন্য বৈধ পাশ পারমিট নিয়ে সুন্দরবনে যান তিনিসহ তার সঙ্গী ৮ জন। গত রবিবার (১১ এপ্রিল) দিবাগত রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাঘের আক্রমনে তার নিহত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। অবশেষে সব খবরকে মিথ্যা প্রমাণিত করে বুধবার (১৪ এপ্রিল) সশরীরে ফিরে এসেছেন তিনি।
মৌয়াল সিরাজুল সরদার গণমাধ্যমকে বলেন, মেয়াদ শেষে ফরেষ্ট স্টেশনে পাশ সম্পূর্ণ করতে গেলে তারা আমাকে দেখে কানাঘুষা শুরু করে। পরে তাদের মাধ্যমে আসল ঘটনা জানতে পারি। সেখানকার আনুসাঙ্গিক কাজ সেরে বাড়িতে ফিরবো।
এদিকে, মৌয়াল সিরাজ সরদার ফিরে এসেছেন শুনে তার কাছের ও দূরের আত্মীয় স্বজনরাও ভীড় জমিয়েছেন তার বাড়িতে। গ্রামের মানুষ ছাড়াও আশপাশের মানুষও কৌতুহল মেটাতে দল বেঁধে উপস্থিত হচ্ছেন ওই বাড়িতে।
সিরাজ সরদারের বড় মেয়ে সেলিনা খাতুন জানান, রবিবার আমরা খবর পাই বাবার নৌকায় বাঘের হামলা হয়েছে। খালেক নামে গ্রামের এক ব্যক্তি এ খবর ছড়ায়। খালেকের বাবাও মধু সংগ্রহে সুন্দরবনে গেছে। যে কারণে খবরটির গুরুত্ব দেয় স্থানীয় মানুষ। বিষয়টি বন বিভাগকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারি দল পাঠায়। এরমধ্যে সোমবার দুপুরের পর ফেসবুকে তার বাবার মৃতদেহ উদ্ধার করে বাড়ি আনার খবর ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া খবরটিকে গুরুত্ব দিয়ে সংবাদপত্রেও ছেপেছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আঃ গফ্ফার ঢালী বলেন, মানুষ গুজব ছড়িয়ে একটি পরিবারকে কোথায় নিতে পারে তার বাস্তব উদাহরণ সিরাজ সরদারের পরিবার। গত কয়েকদিন ধরে তার স্ত্রী ছেলে মেয়েদের কান্নাই এলাকার আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছিল। বাবার মৃতের খবর শুনে তার লাশটি উদ্ধারের জন্য সকলের কাছে ধর্ণা দিয়েছিল তারা।