নরসিংদীতে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, সুদখোরদের শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

আপডেটঃ ৭:২৭ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১

এম.এ.সালাম রানা, নরসিংদী :নরসিংদীর মাধবদীতে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, সুদখোরদের অন্যায় অত্যাচার ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং তাদের শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিলসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসী। জেলার সদর উপজেলার মাধবদী থানাধীন মহিষাশুড়া ইউনিয়নের দাইড়ের পাড় গ্রামে হারুন, রমিজ উদ্দিন, রতন, সালামের নেতৃত্বাধিন সন্ত্রাসী বাহিনীর সন্ত্রাসী কার্য কলাপের বিরুদ্ধে শুক্রবার দুপুরে শান্তিবাজার এলাকায় এ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
মানববন্ধনে এলাকার শত শত  নারী-পুরুষ অংশ নেয়। এসময় বক্তব্য রাখেন ভুক্তভোগি মো: মানিক মিয়া,আহম্মদ আলী, মো: সেলিম, মানসূরা বেগম, শাহিদা বেগম।
বক্তারা দাইড়ের পাড় গ্রামে আহাদ মিয়ার ছেলে হারুন গ্রামের মানুষের বিপদ ও অসহাত্বের  সুযোগ নিয়ে অনেক জোরপূর্বক সুদে টাকা ধার দেয়। মানুষও বিপদে পড়ে তা থেকে পরিত্রাণ পেতে কোন কিছু না বুঝেই তার কাছ থেকে টাকা ধার নেয়। টাকা  ধার নেওয়ার পরই হারুণের আসল রূপ অসহায় গ্রামবাসী সামনে চলে আসে। সে গ্রামেবাসীর চক্রবৃদ্ধি হারে সুদের বোঝা চাপিয়ে দিয়ে জোড় আদায় করে। যারা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে তাদের উপর নেমে আসে অত্যাচারের সিষ্টিম রুলার। তার সন্তাসী বাহিনী রমিজ উদ্দিন, রতন, সালাম, আসাদ, মহসিন, বাদল, বাছেদ, শরীফ, মোমেনদের দিয়ে ওই সকল গ্রামবাসীকে সর্বশান্ত করে গ্রাম ছাড়া করে। শুধু তাই নয় এলাকায় কেউ বাড়ী-ঘরের  কাজ করতে গেলেও এই সন্ত্রাসী  বাহিনীকে চাঁদা  দিতে হয়। না দিলেই তাদে উপর শুরু অত্যাচার । সম্প্রতি এলাকাবাসী   তাদের জমি থেকে নিজেদের প্রয়োজনে মাটি কেটে আনতে গেলে সেখান থেকেও চাঁদা  দাবী করে ওই সন্ত্রাসী বাহিনী। এতে চাঁদার টাকা  দিতে অস্বীকৃতি জানালে বাড়ীঘরে হামলাসহ নিরীহ এলাকাবাসী তাদের মারদোরের শিকার হয়। উল্টো এলাকাবাসীর নামে থানায় মামলাও করে হারণ ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। এরই প্রতিবাদে এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।
বক্তরা বলেন, হারুন, রমিজ উদ্দিন, রতন, সালামের নেতৃত্বাধিন সন্ত্রাসী বাহিনীর অন্যায়-অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ,  তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই তারা উপায়ান্ত না দেখে আজ রাস্তায়  নেমে আসেন। তারা এই সন্ত্রাসী বাহিনীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ তাদের নামে করা সকল মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান।
সিএনএ নিউজ/জামান