মোহনগঞ্জ ও কেন্দুয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দুই প্রার্থী বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত

আপডেটঃ ১১:০৮ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৭, ২০২১

মোনায়েম খান, নেত্রকোনা :  নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ ও কেন্দুয়া পৌরসভায় শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথায়ও কোন গোলযোগ হয়নি। দ্বিতীয় ধাপে পৌরসভা নির্বাচনে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ ও কেন্দুয়া পৌরসভায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে মোহনগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র এডভোকেট লতিফুর রহমান রতন পেয়েছেন, ৯ হাজার ৪ শত ৪৫ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন ব্যালটের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেন। রিটানিং অফিসার আব্দুল লতিফ শেখ জানান, মোহনরগঞ্জ পৌরসভার মোট ভোটার হচ্ছে ২১ হাজার ৪ শত ৪ জন। এর মধ্যে নারী ১০ হাজার ৯ শত ৯১ জন আর পুরুষ ১০ হাজার ৪ শত ১৩ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ২১ হাজার ৪ শত ৪ জন ভোটারের মধ্যে ১৫ হাজার ৪ শত ৩৩ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মোহনগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র এডভোকেট লতিফুর রহমান রতন নৌকা প্রতিক নিয়ে ৯ হাজার ৪ শত ৪৫ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী তাহমিনা পারভীন বিথী নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৪ হাজার ৩ শত ৮৪ ভোট, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মাহবুবুন নবী শেখ ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ২২ ভোট, আওয়ামীলীগের অপর বিদ্রোহী প্রার্থী চৌধুরী কামাল আবু হেনা মোস্তফা সেতু মোবাইল প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১৪৩ ভোট। কেন্দুয়া পৌরসভায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আসাদুল হক ভূঁইয়া ৯ হাজার ১ শত ৭৬ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া পৌরসভার নির্বাচন ইভিএম-এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে মেয়র পদে ২ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেন। রিটানিং অফিসার আব্দুল লতিফ শেখ জানান, কেন্দুয়া পৌরসভার মোট ভোটার হচ্ছে ১৬ হাজার ২ শত ৫৬ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ১৬ হাজার ২ শত ৫৬ জন ভোটারের মধ্যে ১১ হাজার ৪ শত ৩২জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আসাদুল হক ভূঁইয়া নৌকা প্রতিক নিয়ে ৯ হাজার ১ শত ৭৬ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব বিএনপির প্রার্থী কেন্দুয়া উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ২ শত ৫৬ ভোট। * জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আবদুর রহমান এবং পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী সাংবাদিকদের বলেন, মোহনগঞ্জ এবং কেন্দুয়ার ১৮টি (৯+৯) কেন্দ্রের সবক’টিতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ হয়েছে। কোথায়ও কোন গোলযোগ হয়নি। মোহনগঞ্জে ব্যালটের মাধ্যমে এবং কেন্দুয়ায় ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ইভিএম পদ্ধতি নিয়ে ভোটারদের মধ্যে কিছুটা সংশয় থাকলেও ভোট দিতে কারও অসুবিধা হয়নি। তবে ইভিএমএ ভোট দিতে গিয়ে কিছুটা সময় বেশি লেগেছে বলে জানিয়েছেন ভোটাররা।