নেত্রকোনায় ছেলেকে গলাটিপে হত্যা করল বাবা

আপডেটঃ ৮:৫৫ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৬, ২০২১

মোনায়েম খান, নেত্রকোনা:  নেত্রকোনা সদর উপজেলার সিংহের বাংলা ইউনিয়নের কান্দুলিয়া গ্রামে শনিবার দাম্পত্য কলহের জের ধরে এক বাবা তার সাত বছর বয়সী ছেলেকে গলা টিপে হত্যা করেছে। নিহত শিশুটির নাম আারফাত(৭)। আর ঘাতক বাবার নাম এরশাদ মিয়া(৩৫)। পুলিশ এরশাদ মিয়াকে আটক করেছে এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের এরশাদ মিয়া প্রায় আটবছর আগে একই উপজেলার কান্দুলিয়া গ্রামের মতি মিয়ার মেয়ে আফরোজাকে বিয়ে করেন। প্রায় আটমাস আগে দু’জনের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর থেকে আফরোজা তার ছেলে আরাফাতকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন। শনিবার সকালে এরশাদ মিয়া হঠাৎ তার স্ত্রীর বাবার বাড়িতে যান। এরপর তার ছেলে আরাফাতকে ধরে নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেন। দরজা বন্ধ করার পর এরশাদ আরাফাতকে গলাটিপে হত্যা করে ওই ঘরেই বসে থাকেন। বিষয়টি টের পেয়ে আফরোজার পরিবারের লোকজন নেত্রকোনা মডেল থানায় খবর পাঠায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এরশাদ মিয়াকে আটক ও আরাফাতের মৃতদেহ উদ্ধার করে।
নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এরশাদ মিয়াকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। নিহতের লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।