মিমাংসার কথা বলে গৃহবধূকে গণধর্ষণ,আটক ৩

আপডেটঃ ৯:১৮ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৯, ২০২০

টঙ্গী(গাজীপুর)প্রতিনিধি: গাজীপুর গাজীপুরের টঙ্গীতে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে। গত ১১ ডিসেম্বর টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে এ অভিযোগে গত শুক্রবার টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ওই ভুক্তভোগী গৃহবধূ। মামলায় তিন জনের নাম উল্লেখ করা হলে অভিযুক্ত তিন জনকে আটক করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক মো.রাজিব হোসেন।

মামলার এজাহারে ওই গৃহবধূ বলেন, ওই গৃহবধূ টঙ্গীর দত্তপাড়া আলম মার্কেট এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় তার স্বামীর সঙ্গে থাকতেন। গত ১০ ডিসেম্বর তার স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হয় তার। এসময় ওই গৃহবধূকে ঘর থেকে বাইর করে দেওয়া ও তালাক দেওয়ার হুমকি দেয় তার স্বামী। এসময় ওই গৃহবধূ বিষয়টি সমাধানের জন্য তার স্বামীর বন্ধু সৈয়দ রায়হান হোসেন সাদ্দামকে বিষয়টি জানান। তখন সাদ্দাম পরদিন(১১ ডিসেম্বর) বিষয়টি মিমাংসা করে দিবেন বলে জানান। এরপর ওইদিনই বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য দত্তপাড়া রিয়া গার্মেন্টেসসের সামনে আসতে বলেন সাদ্দাম। এসময় ওই গৃহবধূ রিয়া গার্মেন্টসের সামনে আসলে সাদ্দাম তাকে কৌশলে সিএনজি যোগে রাজধানীর বাড্ডা নতুন বাজার একটি কক্ষে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে প্রথমে সাদ্দাম , পরে তার বন্ধু আব্দুর রহমান(৩২) ও মোঃ জসিম(৩০) পালাক্রমে ধর্ষন করে। এসময় আব্দুর রহমান ওই গৃহবধূর ভিডিও ধারণের করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেবার হুমকি দেয়। বিকাল তিনটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত তাকে পালাক্রমে গণধর্ষন করা হয় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ। পরে আবারো সিএনসি যোগে টঙ্গী পাঠিয়ে দেয় নির্যাতিতাকে।

মামলার বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম মামলা ও গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

সিএনএ নিউজ/নাহা