বেতন বৈষম্য নিরসনের প্রতিবাদে স্বাস্থ্য সহকারিদের কর্মবিরতি

আপডেটঃ ৭:৫০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২৬, ২০২০

সাইফুল ইসলাম, রৌমার (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি: ‘‘ভ্যাকসিন হিরো সম্মান, স্বাস্থ্য সহকারির অবদান” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে সারা দেশের ন্যায় কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারিরা কর্ম বিরতি পালন করেছেন। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সকাল ৯ টায় উপজেলা হাসপাতাল চত্বরে এ কর্ম বিরতি পালন করা হয়। এতে অংশ গ্রহণ করেন স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারিবৃন্দ।
১৯৯৮ সালে ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় মাঠ কর্মচারি এসোসিয়েশনের মহাসমাবেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেতন স্কেলসহ টেকনিক্যাল পদমর্যাদার ঘোষণা, ২০১৮ সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি এবং ২০ ফ্রেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিব কর্তৃক দাবী বাস্তবায়নে লিখিত সমঝোতাপত্রে স্বাক্ষর। নিয়োগ বিধি সংশোধন পূর্বক বেতন বৈষম্য দূরীকরন করে স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১১, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১২ এবং স্বাস্থ্য সহকারিদের-১৩ তম গ্রেড প্রদানের দাবীতে কর্ম বিরতি পালন করা হয়। উক্ত দাবীগুলো বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত এ কর্ম বিরতি চলবে।
কর্ম বিরতি পালনকালে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন রৌমারী উপজেলা শাখার মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও স্বাস্থ্যসহকারি মজিদা খাতুন, স্বাস্থ্য সহকারি জহুরুল ইসলাম, নুসরত আমিন জাহিদ, জাহাঙ্গীর আলম, সাদিকুল ইসলাম শাপলা ও মশিউর রহমান।

বাংলাদেশ হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন রৌমারী উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর প্রতিশ্রতি বাস্তবায়ন হয়নি। আমরা অবিলম্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনার দ্রুত বাস্তবায়ন চাই।

বাংলাদেশ হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন রৌমারী উপজেলা শাখার সভাপতি আবু হানিফ বলেন, আমরা স্বাস্থ্য সহকারিরা দেশের জন্য এত সুনাম ও অর্জন বয়ে আনলেও কেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ঘোষণার বাস্তবায়ন এত দেরি তা আমার বোধগম্য নয়। অনতিবিলম্বে আমাদের দাবীগুলোর বাস্তবায়নের জোর দাবী জানাচ্ছি।

 

সিএনএ নিউজ/জামান