ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরি!

আপডেটঃ ১:৪৫ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৬, ২০২০

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বাবা মায়ের কাছে ঘুমিয়ে থাকা সোহানা আক্তার নামে ১৭ দিনের এক শিশু চুরি হয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার দিনগত রাতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের গাবতলা গ্রামের জেলে সুজন খানের বাড়ি থেকে এই শিশু চুরির ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকালে পুলিশ চুরি হয়ে যাওয়া শিশু সোহানাকে উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে। তবে চুরি যাওয়া শিশুটির সন্ধান এখনো পায়নি পুলিশ।

পরিবারের বরাত দিয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম সকালে বলেন, সুজন খান সাগরে মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। সুজন তার স্ত্রী, বাবা, মা ও এক বোনকে নিয়ে একটি টিনশেডের ঘরে বসবাস করেন। ১৭ দিন আগে সুজন শান্তা দম্পতির সোহানা নামে একটি মেয়ে সন্তান হয়। টিনশেডের ওই ঘরে প্রতিদিনের মতো সুজন খান ও শান্তা বেগম দম্পতি রাতের খাবার খেয়ে শিশু সোহানাকে পাশে রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুমানোর পর শিশু সোহানা কান্নাকাটি করলে রাতে তাকে বেশ কয়েকবার বুকের দুধ খাওয়ান মা। রাত আনুমানিক দেড়টা থেকে দুইটার দিকে মা শান্তার ঘুম ভেঙে যায়। ঘুম থেকে জেগে শান্তা তার ১৭ দিন বয়সের বাচ্চাকে পাশে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

শিশু চুরির খবর পুলিশকে জানালে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে সুজনের বাড়িতে যায়। সুজনের বসতঘরটি টিনশেডের। তার ঘরের দরজা ভাঙার কোনো চিহ্ন নেই। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সুজন-শান্তা দম্পতি ঘরের দরজা আটকে ছিল কি না তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না।

চুরি যাওয়া শিশু সোহানাকে উদ্ধারে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। কারা কী উদ্দেশ্যে কীভাবে শিশুটিকে চুরি করল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।