ভিভো ফোনে নতুন ইউজার ইন্টারফেস

আপডেটঃ ২:৫১ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৯, ২০২০

তথ‌্যপ্রযু‌ক্তি ডেস্ক: নতুন কাস্টম ইউজার ইন্টারফেস (ইউআই) নিয়ে আসছে ভিভো। আসন্ন ভিভো ডেভেলপার কনফারেন্সে এই অরিজিন ওএস-এর সঙ্গে পরিচিতি হবে ভিভো প্রেমীদের। সম্প্রতি চীনের মাইক্রোব্লগিং সাইট উইবো-তে এই সম্পর্কে জানিয়েছে ভিভো।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষে জানানো হয়েছে, এই মোবাইল ইউআই-এর উপরে প্রায় এক বছর ধরে কাজ করছিলেন ডেভেলপাররা। আশা করা হচ্ছে, ভিভোএক্স৫০ সিরিজের মাধ্যমে প্রথমবার বাজারে আসবে অরিজিন ওএস। এ ক্ষেত্রে বর্তমান কাস্টম ইউআই ফাংশন ওএস-কে সরিয়ে সেই জায়গা নিতে চলেছে অরিজিন ওএস।

ডেভেলপার টিম অরিজিন স্টুডিও-র নামেই নামকরণ করা হয়েছে এই নতুন ওএস-এর। তবে এই অরিজিন ওএস-র সঙ্গে কী কী ফিচার আসছে, তা এখনও জানা যায়নি। আশা করা যাচ্ছে, আগের থেকে অপেক্ষাকৃত ভালো অ্যানড্রয়েড এক্সপিরিয়েন্স পাবেন ব্যবহারকারীরা। ইতিমধ্যেই এই নতুন ভিভো ইউআই-নিয়ে একটি জল্পনা শুরু হয়েছে।

অনেকে বলছেন, নতুন ভিভো ইউআই-এ একটি টগল সুইচ থাকবে। যা মডিফায়েড ভার্সন ও আগের ক্লিনার অ্যানড্রয়েড ইউএক্স-এর মধ্যে যোগাযোগ সূত্র তৈরি করবে। এর জেরে ব্যবহারকারীরা দুটি ভার্সনের মধ্যেই সুইচ করাতে পারবেন নিজেদের।

প্রসঙ্গত, ভিভো এক্স৬০ স্মার্টফোন বাজারে আসার কথা রয়েছে। বাজার যখন ভিভোর নতুন ফোনের দিকে তাকিয়ে, তখনই এই অরিজিন ওএস-এর ঘোষণা করা হল প্রস্ততকারী সংস্থার তরফে ভিভোর এই নতুন অ্যান্ড্রয়েড বেসড ইউজার ইন্টারফেস বাজারে প্রতিযোগিতা তৈরি করবে বলে জানাচ্ছেন টেক-এক্সপার্টরা। এ ক্ষেত্রে এই অরিজিন ওএস টেক্কা দিতে পারে শাওমি বা স্যামসাং-কে। উল্লেখ্য, বর্তমানে শাওমি তার কাস্ট এমআইইউ চালায় স্মার্টফোনগুলোতে। অন্যদিকে ওয়ান ইউআই চালায় স্যামসাং।

তবে ভিভো-র সফটওয়্যার পারফরম্যান্স নিয়ে টেক-মহলের একাংশে খুব সমালোচনাও করা হয়। সম্প্রতি, রিসার্চ ফার্ম কাউন্টারপয়েন্ট-এর একটি প্রতিবেদনে, সফটওয়্যার আপডেটের দিক থেকে খুবই খারাপ রেটিং দেওয়া হয়েছে ভিভো-কে।

প্রতিবেদন সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৯ সালের থার্ড কোয়ার্টার থেকে ২০২০ সালের সেকেন্ড কোয়ার্টারের মধ্যে বিক্রি হওয়া ভিভো ফোনের মাত্র ২৪ শতাংশতেই আপডেট এসেছে। এ ক্ষেত্রে ফোনগুলোকে ফানটাচ ওএস-এর সঙ্গে অ্যানড্রয়েড ১০ ভার্সনে আপডেট করা হয়েছে।