বারহাট্টায় অন্যের বউ চুরি করে পালানোর সময় তরুন গ্রেফতার

আপডেটঃ ৬:৪৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ৩১, ২০২০

বারহাট্টা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি:  নেত্রকোনার বারহাট্টায় অন্যের বউ অপহরণ করে পালানোর সময় পুলিশের হাতে ধরা খেয়েছে এক তরুন। গ্রেফতারকৃত তরুনের নাম মোঃ সোহাগ মিয়া। তিনি জেলার কলমাকান্দা উপজেলার টেঙ্গা গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। বারহাট্টা উপজেলার রৌহা গ্রামের নববধূকে (১৬) নিয়ে অটো রিক্সাযোগে পালানোর সময় গোপালপুরবাজার এলাকা থেকে নববধূকে উদ্ধার ও সোহাগ মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। এ ব্যাপারে অপহৃতার মামা সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার সুনই গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে মোঃ মাহাবুব আলম বাদী হয়ে শনিবার দুপুরের দিকে সোহাগ মিয়া, তার পিতা গিয়াস উদ্দিন ও মাতা হাজেরা আক্তারের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার অভিযোগে জানা যায়, অপহৃতা মেয়েটি পিতৃহীন। তার বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার সুনই গ্রামে। সোহাগ তাকে বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করত। সোহাগের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য প্রায় এক মাস আগে মেয়েটিকে অপ্রাপ্ত বয়সেই বারহাট্টা উপজেলার রৌহা গ্রামে বিয়ে দেওয়া হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় সোহাগসহ অন্যরা রৌহা গ্রামে আসে এবং মোবাইলের মাধ্যমে ফোঁসলিয়ে মেয়েটিকে অপহরণ করে রিক্সাযোগে পালিয়ে যায়।
বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় গোপালপুরবাজার এলাকা থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী সন্দেহে সোহাগ মিয়া নামে এক তরুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্ঠা চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিএনএ নিউজ/নাহা