ব্রেকিং নিউজঃ

রৌমারীতে ধেয়ে আসছে বন্যা

আপডেটঃ ৬:১৩ অপরাহ্ণ | জুন ২৭, ২০২০

মোস্তাফিজুর রহমান তারা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: রৌমারীতে কয়েক দিনের টানা বর্ষণ ও ভারতীয় পাহাড়ি ঢলে ধনারচর, ফইজদারী ও দাঁতভাঙ্গা বেড়ীবাঁধের পশ্চিমাংশে পানিতে একাকার হয়ে গেছে। জেলা থেকে ১৫টি নদ-নদী দ্বারা বিচ্ছিন্ন রৌমারী রাজিবপুর। এঅ রটি ব্রহ্মপুত্র নদ ও ভারতীয সীমান্ত লাগোয়া হওয়ায় বর্ষা-মৌসুমে উজান থেকে নেমে আসা ভারতীয় পাহাড়ী ঢল ব্রহ্মপুত্র নদের সাথে মিলিত হয়ে অতি সহজে উপজেলা ২টি প্লাবিত হয়। ব্রহ্মপুত্রের পুর্বপারে নদ-নদীর কবল থেকে রক্ষার শক্তিশালী শহর রক্ষা বাঁধ না থাকায়, প্রতি বছর বর্ষার পানিতে এখানকার মানুষ ব্যাপক ক্ষতির সন্মুখীন হয়। বানের পানি বৃদ্ধির ফলে বাঁধের পশ্চিম পাশের্^ পাট,তিল,কাউন,আষাড়ী বাদামসহ অসংখ্য ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। পানির প্রচন্ড বেগ আচরে পড়ছে নদের পুর্বপারে অরক্ষিত বাঁধের উপর। প্রতিদিন পানি বেড়েই চলছে। যারফলে আতংক বিরাজ করছে ,বাঁধের পশ্চিম পাশের্^ প্রায় ২ লাখ মানুষের মাঝে। উপজেলার দক্ষিনাংশে ধনারচর বেড়ীবাঁধটির চাকতা বাড়ী ও কর্তিমারী ঘাটে ভাঙ্গা অংশটি মেরামত না করায় ওই অ লটি ইতোমধ্যে প্লাবিত হয়েছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে এবং পানির চাপে বাঁধটি কোথাও ছিড়ে গেলে গত বছরের ন্যায় মানুষকে গরু,ছাগল,হাস,মুরগী ও আসবাবপত্র নিয়ে চরম দূর্ভোগে পড়তে হবে।