বিশিষ্ট সাংবাদিক কবি মু.আ রাজ্জাক আর নেই

আপডেটঃ ৪:০৫ অপরাহ্ণ | জুন ১৬, ২০২০

মোস্তাফিজুর রহমান তারা ,রৌমারী কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃবিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিষ্ট কবি মু.আ রাজ্জাক আর নেই। আজ মঙ্গলবার (১৬ জুন) সকাল সাড়ে ৮ টায় নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন মু আ রাজ্জাক (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর।
কবি মু.আ রাজ্জাক দীর্ঘ দিন যাবত কিডনি ও লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন। এর আগে অসুস্থ হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরবর্তিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন।
কবি মু.আ রাজ্জাক ছাত্র জীবন থেকে সাংবাদিকতা পেশায় জড়িয়ে ছিলেন। তিনি “শান্তি নাই” কাব্যগ্রন্থ নামের একটি বই প্রকাশ করেন। তিনি দির্ঘদিন দৈনিক করতোয়া ও গণপ্রহরী পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি রৌমারী থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক দ্বীপদেশ, সংযোগ সাময়িকী ও আয়না পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সামজিক সংগঠনের মধ্যে থেকে সামাজিক দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। প্রয়াস নাট্য সংগঠন, সুবচন কবিতা পরিষদ, যাত্রীক শিল্পী গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক সংগঠন, রৌমারী প্রেসক্লাবের সভাপতি ও উপজেলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা এবং নুরপুর দারুচ্ছুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
পাশাপাশি তিনি ২০১৯ সালে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে বিশেষ অবদান রাখায় তাকে কুড়িগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমির পক্ষ থেকে অভিনন্দন স্বারক প্রদান করা হয়।
এ ছাড়াও কবিতা নাটক এবং সাংস্কৃতিক সংগঠক হিসেবে বিশেষ অবদান রাখায় কবি মু.আ রাজ্জাককে প্রিয়জন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন থেকে সম্মাননা দেওয়া হয়। তিনি পেশায় হোমিও চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
৭ ফেব্রুয়ারী ১৯৫১ সালে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের নুরপুরপ গ্রামের সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন এই খ্যাতিমান সাংবাদিক। তার বাবা ছিলেন মরহুম পন্ডিত মোখলেছুর রহমান ও মাতা রাহিলা বেগম। তিনি মৃত্যু কালে স্ত্রী, দুই ছেলে, আত্মীয় স্বজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। এবং মু, আ রাজ্জাক মৃত্যুর পূর্ব মুহুত্ব পর্যন্ত উপজেলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা ছিলেন। এবিষয় উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান তারা, চোখের জল ফেলে বলেন আজ আমরা একজন অভিভাবক হারালাম। আল্লাহ তায়ালা যেন তাকে বেহেস্তবাসী করেন।