বাউফল থানার এক এএসআই’র বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবির অভিযোগ

আপডেটঃ ৬:২৬ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৪, ২০১৬

মো: হুমায়ুন কবির,সি এন এ  নিউজ,বাউফল:পটুয়াখালীর বাউফল থানার এএসআই মোফাজ্জেল হোসেন এর বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে। থানা সূত্রে জানাযায়, এএসআই মোফাজ্জেল হোসেন কেশবপুর গ্রমের দুলাল নামের এক পুলিশ কনস্টেবল এর ঘরে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে একই বাড়ির চাচাতো ভাই রাসেল (৩৫) কে আটক করে বুধবার থানায় নিয়ে আসে। আটকের পর থানায় বসে রাসেলের মা মমতাজ বেগমের কাছে তার ছেলেকে ছেড়ে দেয়ার জন্য পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করে। ওই পরিমান টাকা না দিলে তার ছেলেকে ডাকাতি মামলার আসামি করা হবে বলে শাসাতে থাকে। এক পর্যায়ে ৫ লাখ টাকার পরিবর্তে ২ লাখ টাকায় ছেড়ে দেয়ার জন্য রফাদফা হয়। এ ডাকাতির খবর পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পৌছলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান তদন্তের জন্য ঘটনা স্থলে যান। তদন্ত শেষে রাসেল কে নির্দোষ বলে ছেড়ে দেন। পর দিন গত বৃহস্পতিবার রাসেলের মা মমতাজ ও স্ত্রী রুমা বেগম ঘুষ দাবির ঘটনা উল্লেখ করে এএসআই মোফাজ্জেল হোসেন এর বিরুদ্ধে পুলিশ সুপারের কাছে আভিযোগ দেন। লালমোহন থানায় কর্মরত পুলিশ কনেষ্টবল দুলাল ব্যাপারি জানান, মঙ্গলবার রাতে তার ঘর ডাকাতি হয়েছে। এ ঘটনায় আমি কাউকে আসামি করে থানায় মামলা করিনি। এএসআই মোফাজ্জেল হোসেন ঘুষ দাবির কথা অস্বিকার করে বলেন, পুলিশ কনস্টবলের স্ত্রী কুলসুম বেগম রাসেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় তাকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সহকারী পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান বলেন, ঘুষ দাবির কথা শুনেছি, বিষয়টি গুরুত্বের সাথে তদন্ত চলছে।