কীভাবে প্রস্তাব দিবেন

আপডেটঃ ১:৩০ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১০, ২০১৬

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বিয়ে, ভালোবাসা, এক সাথে দীর্ঘ পথে চলা এসবের শুরু হয় একে অন্যকে প্রপোজ করার মাধ্যমে। ভালোবাসার মানুষের কাছে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে প্রপোজ। তবে এর আগেও নিজের মাঝে আনা উচিৎ কিছু পরিবর্তন। কিছু বিষয় নিয়ে ভাবা উচিৎ। আপনি যাকে নিয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ার স্বপ্ন দেখছেন তা আসলে কতদূর সম্ভব এবং এর পরিণতি কী? আপনাকে জানতে হবে আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনী কী পছন্দ করে এবং সেইসঙ্গে আরো খুঁটিনাটি অনেক কিছু।
আপনার সঙ্গীর লক্ষ্য কী?
সঙ্গীর চিন্তার মধ্যে মিল থাকা যেকোনো সম্পর্কের জন্যই জরুরি। তাই হাঁটু গেড়ে তাকে প্রপোজ করার পূর্বে তার জীবনের লক্ষ্য সম্পর্কে জেনে নিন। যাতে কাউকে নিজের স্বপ্ন একে অন্যের জন্য পাশ কাটিয়ে যেতে না হয়। আর সম্পর্কের শুরুতেই যে সব বিষয় নিয়ে সমস্যা শুরু হয় তা হচ্ছে এই জীবনের লক্ষ্য। আপনার কাছে যা ভালো লাগছে তা যে সারা জীবন ভালোলাগবে এবং আপনি তার পাশে থাকতে পারবেন এই মনোবল নিয়েই তাকে প্রপোজ করুন।
বিয়ে আপনার জন্য কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ
আপনি যখন কাউকে ভালোবাসবেন তখন অবশ্যই তাকে নিয়ে বিয়ে পর্যন্ত চিন্তা করবেন। তবে ক্ষেত্র বিশেষে কেউ কেউ সম্পর্ককে নিয়ে এতদূর চিন্তা করেন না। তাদের কাছে ভালোবাসা পর্যন্তই সম্পর্কের ইতি ঘটে। তবে আপনি যদি এই মনমানসিকতার বাইরে হন তবে ভালোবাসার মানুষকে প্রপোজ করুন। এর আগে না।
নিরপেক্ষভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া
প্রতিটা মানুষ চায় তার ভালোবাসার মানুষ যেকোনো ক্ষেত্রেই নিরপেক্ষভাবে সিদ্ধান্ত নেক। আর আপনিও নিশ্চয়ই চাইবেন যেন তার মাঝেও এই গুণাবলিগুলো থাকে। আর আপনি যখন যেকোনো সিদ্ধান্ত এভাবে নিরপেক্ষভাবে নিতে পারবেন তখনই তাকে প্রপোজ করুন। কারণ আপনার নিজের মানসিকতা এখানে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যেভাবে আশপাশটা দেখবেন আপনার সঙ্গীও তেমনি আপনাকে বিচার করবে এবং তার প্রভাব সম্পর্কে পড়বে।
ভালোবাসার মানুষের রুচি বুঝে
এই ক্ষেত্রে আপনার ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে আপনার একটু পড়াশুনা করতে হবে। তার পছন্দ অপছন্দ নিয়ে ভাবতে হবে। আর এটা মাথায় রাখতে হবে যে সে যা যা ভালোবাসে বা যেমনটা ভালোবাসে তাকে তেমনভাবে প্রপোজ করা। আপনার ভালোবাসার মানুষটি যদি ফুল, চকোলেট কিংবা আইসক্রিম পছন্দ করে তবে তাকে তা দিয়েই প্রপোজ করুন।
দ্বায়িত্ব নিতে পারবেন কী না?
প্রপোজ মানেই এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া জীবনের পথে। আর এর পরের ধাপই বিয়ে। আপনি কতটা দ্বায়িত্ব নিতে পারবেন বিয়ের পর এটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। তাই নিজেকে সবার আগে প্রস্তুত করুন এবং এরপর তাকে প্রপোজ করুন।