বিএনপিতে শিরিন-পাপিয়ার পদত্যাগ

আপডেটঃ ১২:০১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৬

ডেস্ক রিপোর্ট: বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে প্রত্যাশিত পদ না পেয়ে ছাত্রদলের রাজনীতি থেকে ওঠে আসা দুই সক্রিয় নারী নেত্রী শিরীন সুলতানা ও আশিফা আশরাফি পাপিয়া পদত্যাগ করেছেন।

সোমবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন শিরীন সুলতানা। পাশাপাশি মানবাধিকার বিষয়ক সহ-সম্পাদকসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন এডভোকেট আশিফা আশরাফি পাপিয়া। তবে শিরীন সুলতানা জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাধারণ সাধারণ সম্পাদকের পদে রয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে দুই নারী নেত্রী পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের প্রায় সাড়ে চারমাস পর ঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক মনোনীত করায় তাকে অবমূল্যায়ন করা হয়েছে জানিয়ে পদত্যাগ করেছেন শিরিন সুলতানা। কেন্দ্রীয় কমিটিতে সম্মানজনক পদ না পাওয়ায় তিনি বিএনপির নারী সংগঠন মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদককে দায়িত্বে থাকতে চান। শিরিন সুলতানার এই পদত্যাগ দলের ‘এক নেতার এক পদ’ নীতি কারণেও হতে পারে বলে মনে করেছেন অনেকে।

শিগগিরইজাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কমিটি ঘোষণা করা হবে। ওই কমিটির নেতৃত্ব ধরে রাখার জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে ইস্তফা দিয়েছেন বলে শিরিনের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়।

এদিকে কেন্দ্রীয় কমিটির ২০৯ টি সম্পাদকীয় পদের তালিকায় আশিফা আশরাফি পাপিয়াকে রাখা হয়েছে ২০৭ নাম্বারের সহ সম্পাদকীয় পদে। দলের অনেক নিষ্ক্রিয় ও কনিষ্ঠ নেতাদেরকে কমিটিতে মূল্যায়ন করা হলেও তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে জানিয়ে তিনি পদত্যাগ করেছেন। কেবল কেন্দ্রীয় কমিটিই নয়, পাশাপাশি জেলা পর্যায়ের পদ থেকেও তিনি অব্যাহতি চেয়েছেন।