তরুণ সমাজসেবক মোঃ তোফায়েল আহমেদের ত্রাণ বিতরণ

আপডেটঃ ৫:৩৭ অপরাহ্ণ | জুন ২৭, ২০২২

 

দেলোয়ার হোসেন মাসুদঃ

একজন তরুণ সমাজসেবক মোঃ তোফায়েল আহমেদ। তিনি ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধু কে, ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা কে। বুকে ধারণ করেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ। তিনি বারহাট্টা উপজেলার শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের সভাপতি ও চিরাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তরুণ এই সমাজ সেবক চিরাম ইউনিয়নের ৫/৬ টা গ্রাম বাদে প্রত্যেকটা গ্রামে নিজ উদ্যোগে গতকাল পর্যন্ত ৪২৫০ প্যাকেট শুকনো খাবার চিড়া, মুড়ি, গুড় ও চিনি বন্যা কবলিত এলাকায় বিতরণ করেন।

তরুণ এই সমাজসেবক জানান, পাহাড়ী ঢল ও অতিরিক্ত বর্ষণের ফলে হঠাৎ নেমে আসা এ দূর্যোগের পরদিন থেকেই তিনি নিজ উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করে আসছেন। তিনি বলেন, “এ সময়টা বন্যা কবলিত এলাকার সকল মানুষই ভুক্তভোগী। আমাদের সমাজে অনেক বিত্তবান মানুষ আছেন দূর্যোগকালীন বা দূর্যোগ পরবর্তী সময়ে বন্যা কবলিত মানুষের পাশে এসে দাঁড়ালে এ ধরনের দূর্যোগ কাটিয়ে উঠাা কোন ব্যাপার না, তাই আমি চাই আমার মত সবাই এ দূর্যোগে মানুষের পাশে এসে দাঁড়াক।”
বেশ কয়েকদিন আগে নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলার চিরাম ইউনিয়নে গিয়েছিলাম মাননীয় সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের রিপোর্ট করতে, ট্রলারে করে যাচ্ছিলাম আর বন্যা কবলিত এলাকায় পথিমধ্যে ৮/১০ টি পয়েন্টে ট্রলার থেমে থেমে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছিলো। ত্রাণ বিতরণ করতে করতে রাত প্রায় ১০ টা বেজে গিয়েছিলো। সবমিলিয়ে আমরা প্রায় ৩০০ জন লোক ছিলাম। ত্রাণ বিতরণ করতে করতে প্রত্যেকটা মানুষ ক্ষুধার্ত আর ক্লান্তও হয়ে গিয়েছিলো। তরুণ এই সমাজ সেবক প্রত্যেকটা লোক কে রাত ১০টার দিকে খাওয়ার ব্যবস্থা করেছিলেন, যেখানে এক গ্লাস পানিও খুঁজে পাওয়া দুষ্কর ছিলো। এমন একটা সময়ে এ কাজটি তিনি করেছিলেন যা ঐ মূহুর্তে তিনি না করলেও পারতেন। যা তিনি একটি অনন্য দৃষ্টান্ত তৈরী করেছেন। সমাজে এমন লোকের প্রয়োজন, নেতৃত্বে এমন লোকই থাকা দরকার।