ইপিজেড নির্মাণের প্রতিবাদে সাঁওতাল-বাঙালী নারী সমাবেশ

আপডেটঃ ১২:০১ পূর্বাহ্ণ | মে ২৯, ২০২২

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ইক্ষুখামারের বিরোধপূর্ণ তিন ফসলি জমিতে ইপিজেড নির্মাণের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে সাঁওতাল-বাঙালী নারী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার (২৮ মে) সকাল ১১টা থেকে ঘন্টাব্যাপি গোবিন্দগঞ্জ-দিনাজপুর আঞ্চলিক সড়কের কাটামোড় এলাকায় সাঁওতাল-বাঙালী নারীরা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এর আগে সাঁওতাল-বাঙালি নারীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বিক্ষোভ মিছিলটি গোবিন্দগঞ্জ-দিনাজপুর সড়কের কাটামোড় থেকে বাগদা বাজার পর্যন্ত প্রদক্ষিণ করে পুনরায় কাটামোড়ে এসে সমবেত হয়। সেখানে সমাবেশ করেন সাঁওতাল-বাঙালী নারীরা। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি পুনরুদ্ধার সংগ্রাম কমিটির আয়োজনে এ কর্মসূচি পালিত হয়।
সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি পুনরুদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সদস্য অমেদা বেগমের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, প্রিসিলা মুরমু, অলিভিয়া হেমব্রম, শারমিন মার্ডী, নমিতা টুডু, সুফল হেমব্রেম, আন্তনিয়াতা হেমব্রেম, মমতা হেমবেম ও রাজমনি হেমব্রেম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, তিন সাঁওতাল হত্যার পাঁচ বছর পেরিয়ে গেলেও আজও জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। বিচারের নামে টালবাহনা করা হচ্ছে। সাঁওতালদের মাথার ওপরে বেশ কয়েকটি মিথ্যা মামলা ঝুঁলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এসব নিয়ে কারো মাথা ব্যথা নেই। উল্টো ইপিজেডের নামে সাঁওতালদের উচ্ছেদের পায়তারা করা হচ্ছে। একটি চক্র নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই। সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বক্তারা বলেন, এই জমিতে যদি ইপিজেড করতেই হয়, তাহলে সাঁওতালদের সঙ্গে আলোচনায় বসার ব্যবস্থা করুন। জোরপূর্বক কিছু করার চেষ্টা করবেন না। এর আগে আমাদের তিন ভাই এই জমি উদ্ধার করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন। অনেকে গুলিতে পঙ্গ হয়েছে। প্রয়োজনে আরও রক্ত দিব। তবু এই জমিতে ইপিজেড করতে দেওয় হবেনা।
বক্তারা তিন সাঁওতাল হত্যার বিচার, ক্ষতিপূরণ ও লুটপাটসহ সাতদফা বাস্তবায়নের দাবী জানান। অন্যথায় বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণার হুসিয়ারী উচ্চারণ করেন বক্তারা।