বীরত্বের ১৭৫, ৩৬৫-তে থামল বাংলাদেশ

আপডেটঃ ৩:৪১ অপরাহ্ণ | মে ২৪, ২০২২

খেলাধুলা ডেস্ক: দুঃসহ শুরুর পর লিটন-মুশফিকের বীরত্ব গাঁথা দুটি ইনিংস। লঙ্কান পেসারদের তোপ থামিয়ে প্রথম দিনে ঘুরে দাঁড়ানো বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত ৩৬৫ রানে শেষ করেছে প্রথম ইনিংস।
ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে গতকাল প্রথম ঘণ্টায় মাত্র ২৪ রানেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ। স্পিন সহায়ক মিরপুরের মাঠে রীতিমতো তাণ্ডব চালিয়েছিলেন কাসুন রাজিথা ও আসিথা ফার্নান্দো। প্রথম দিনে আউট হওয়া পাঁচ ব্যাটারের তিন জনই বিদায় নেন রানের খাতা না।
খাদের কিনারে দাঁড়িয়ে লড়াই শুরু করা লিটন-মুশফিক প্রথম দিনেই তুলে নেন শতক। দুজনের জোড়া শতকে ভর করে ২৭৭ রানে দিন শেষ স্বাগতিকরা। তবে ভয় ছিল দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন।
সেই ভয়ই শেষ পর্যন্ত চেপে ধরে বাংলাদেশকে। লিটন দাস আজ মাত্র ছয় রান যোগ করেই ফিরেন সাজঘরে। তার আগে অবশ্য শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে রেকর্ড ২৭৭ রানের জুটি গড়ে ফেলেন মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে।
এর আগে ২০১৩ সালে লঙ্কানদের বিপক্ষে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৬৭ রানের জুটি গড়েন মুশফিক ও মোহাম্মদ আশরাফুল।
লিটন ১৪১ রান করে সাজঘরে ফেরার পর শূন্য রানে বিদায় নেন ৩২ মাস পর দলে ফেরা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।
এরপর তাইজুল ইসলামকে নিয়ে আরও ৪৯ রানের জুটি বাঁধেন মুশফিক। প্রথম দিনে শতক হাঁকানো মুশফিক আজ পেরিয়ে যান দেড়শ রান। যা দেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫ বার (৯ সেঞ্চুরি) দেড়শ পার করা ইনিংস।
শেষ উইকেট জুটিতে এবাদত হোসেনকে নিয়ে মুশফিক লড়াই চালিয়ে যান দেড়শকে দুইশ রানে রূপ দিতে। মধ্যাহ্ন বিরতির পর এসে অবশ্য বেশিদূর এগুতে পারেননি। আর চার রান যোগ করতেই ১৭৫ রানের ইনিংস খেলে রান আউট হয়ে যান মুশফিক।
শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৬৫ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন কাসুন রাজিথা, ৯৩ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন আসিথা ফার্নান্দো।