অমর একুশে বইমেলা মেলা জমলেও জমেনি লিটল ম্যাগ

আপডেটঃ ৮:২০ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২২

ঢাবি সংবাদদাতা: বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ছিলো অমর একুশে বইমেলা ২০২২ এর দশম দিন। সপ্তাহ জুড়েই মেলা প্রাঙ্গণ দর্শনার্থীদের ভীড়ে ছিলো জমজমাট। মেলায় স্টল প্যাভিলিয়ন গুলোতে যথেষ্ট দর্শনার্থী লক্ষ্য করা গেলেও লিটল ম্যাগ চত্ত্বরে দর্শনার্থীদের তেমন আনাগোনা লক্ষ্য করা যায়নি।
দেড় দশক ধরে বাংলা একাডেমির বহেড়াতলায় স্থান পাওয়া লিটল ম্যাগ চত্বর এখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মূল অংশে। গতবছর মেলার পূর্বাংশে রমনা কালী মন্দিরের পেছনে স্থান হলেও পরে আন্দোলনের মুখে আগের জায়গায় ফিরে আসে লিটল ম্যাগ চত্বর। কারণ সে জায়গাটিকে ‘বিচ্ছিন্ন স্থান’ হিসেবে উল্লেখ করেন প্রকাশক-সম্পাদকেরা। স্থান পরিবর্তন হলেও দর্শক শূন্যই রয়ে গেলো লিটল ম্যাগ চত্ত্বর৷
লিটল ম্যাগ চত্ত্বর ঘুরে দেখ যায়, প্রায় দর্শক শূন্যই এই চত্ত্বর। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের অন্যান্য অংশে দর্শনার্থীদের আনাগোনা দেখা গেলেও লিটল ম্যাগে দেখা যায় না। বিক্রেতারা তাই নিজেদের মধ্যে গল্পে আড্ডায় ব্যস্ত।
এ বিষয়ে লিটল ম্যাগাজিন ভাবনা এর সম্পাদক ও প্রকাশক কাজী ছাব্বির বলেন, গতানুগতিক ধারার বিপরীতে যারা মুক্ত চিন্তায় ভিন্ন ধারায় কিছু লিখতে চায় তারাই মূলত এসব ম্যাগাজিনে লিখে থাকেন। তাই অনেক সময়ই এ ধরনের লিখাগুলো স্রোতের প্রতিকূলে হয়ে যায়। যে কারণে পাঠক চাহিদা কম থাকে।
দ্রষ্টব্যের সম্পাদক ও করাতকলের প্রকাশক চারু পিন্ট বলেন, লিটল ম্যাগ চত্ত্বরে লিটল ম্যাগাজিন বাদে অন্যান্য ম্যাগাজিনগুলোকে স্টল বরাদ্দ দেওয়া বন্ধ না হবে ততদিন এই চত্ত্বর মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠবে না৷
বৃহস্পতিবার অমর একুশ বইমলার ১০তম দিন। মেলা চলে দুপুর ২টা থেকে রাত ৯:০০টা পর্যন্ত। বইমলায় এ দিন নতুন বই এসেছে ১০৬টি।
এদিন বিকাল ৪:০০টায় গ্রমলার মূলমঞ্চ অনুষ্ঠিত হয় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদশর সংবিধান শীর্ষক আলাচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফউজুল আজিম। আলাচনায় অংশগ্রহণ করেন সাহিদা বগম এবং কুতুব আজাদ। অনুষ্ঠান সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক খুরশীদা বেগম।