ব্রেকিং নিউজঃ

রূপচর্চায় ঘরোয়া পদ্ধতি, ঐশ্বরিয়ার বিউটি টিপস

আপডেটঃ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ | আগস্ট ২৩, ২০২১

লাইফস্টাইল ডেক্স :বকের যত্নে সবচেয়ে বেশি মনোযোগী হন তারকারা। বলিউড অভিনেত্রী ও সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইও তার বিপরীত নন। বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় জেতার ২৭ বছর পরও অনেকটা একই রকম সুন্দরী তিনি। মা হওয়ার পরেও নিজের সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী। এর রহস্য লুকিয়ে রয়েছে ঘরোয়া পদ্ধতিতে। ঐশ্বরিয়া রূপচর্চায় বরাবরই ঘরোয়া এবং প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি বিভিন্ন সামগ্রীতে বিশ্বাস করেন।

কীভাবে ত্বক পরিচর্যা করেন, তার উজ্জ্বল ত্বকের রহস্য কী? এসব নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে খোলামেলা বলেন ঐশ্বরিয়া রায়। সেখানে তিনি জানান, প্রতিদিন তার রান্নাঘরে যেসব উপকরণ থাকে, তা দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করেন। কনফ্লাওয়ার, দই এবং মধু মিশিয়ে তৈরি করেন ফেস মাস্ক। মুখে লাগানোর পর ২০ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেললেই অনেক উপকার পাওয়া যায়।

তার মতে, ত্বককে আর্দ্র রাখা অত্যন্ত জরুরি। তাই দিনে অন্তত ১০ গ্লাস পানি পান করেন তিনি। একই সঙ্গে ত্বকে প্রতিদিন ময়শ্চারাইজার লাগানো জরুরি বলে মনে করেন এই বলিউড অভিনেত্রী।

৯ বছরের কন্যা আরাধ্যার মা জানান, ঘরে পাতা দই দিয়ে এক বিশেষ ফেসপ্যাক তিনি নিয়মিত মুখে লাগান। এর ফলে ত্বকের নমনীয়তা বজায় থাকে। আর একটি ঘরোয়া স্ক্র্যাব ব্যবহার করেন ঐশ্বরিয়া। বেসন, হলুদ আর দুধ দিয়ে এই স্ক্র্যাব বানানো হয়। স্ক্র্যাবটি নিয়মিত মুখে লাগান। বেসনের এই স্ক্র্যাব ত্বকের মৃত কোষ ঝরিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। ত্বককে তাজা রাখতে ঐশ্বরিয়া শসা ঘষে ফেসপ্যাক বানিয়ে মুখে লাগান। তবে ত্বকের ছোটখাটো যেকোনো সমস্যার ক্ষেত্রে ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী।

এছাড়াও যেখানেই যান, সেখানে বাড়ির খাবার সঙ্গে নিয়ে যান জুনিয়র বচ্চন বধূ। সুন্দর ত্বক পেতে চাইলে কী করতে হবে- এমন প্রশ্নের উত্তরে ঐশ্বরিয়া বলেন, স্ট্রেস ফ্রি থাকার অভ্যাস করতে হবে। যে যত বেশি স্ট্রেসে থাকেন, তার তত দ্রুত বলিরেখা পড়ে।