পিঙ্ক বলে শুরু হবে অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজ

আপডেটঃ ১০:৩২ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ০৭, ২০২০

ক্রীড়া ডেস্ক: অ্যাডিলেড ওভালে পিঙ্ক বল টেস্ট ম্যাচ (দিন-রাতের) দিয়ে অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্ট সিরিজে অভিযান শুরু করবে ভারতীয় দল। তবে দু’মাসেরও বেশি সময়ব্যাপী ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর শুরু হবে সাদা বলের সিরিজ দিয়েই। ব্রিসবেনে ৩টি ওয়ান-ডে ম্যাচ খেলার পর অ্যাডিলেডে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে দু’দল। এরপর আগামী ১৭-২১ ডিসেম্বর অ্যাডিলেডেই শুরু হবে ভারত-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টেস্ট।

প্রথা মেনে ২৬-৩০ ডিসেম্বর মেলবোর্নেই অনুষ্ঠিত হবে বক্সিং-ডে টেস্ট ম্যাচ। এরপর সিরিজের বাকি দু’টি টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে সিডনি (৭-১১ জানুয়ারি) এবং ব্রিসবেনে (১৫-১৯ জানুয়ারি)। করোনা আবহে প্রাথমকিভাবে ভারত-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ নিয়ে যে সূচি তৈরি করেছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, তাতে গাব্বাতেই শুরু হওয়ার কথা ছিল কোহলি-পেইন দ্বৈরথ।

১০ নভেম্বর শেষ হচ্ছে ত্রয়োদশ আইপিএলের আসর। আইপিএল খেলে সংযুক্ত আরব আমিরশাহী থেকে সরাসরি ব্রিসবেনে পা রাখবেন কোহলি-রোহিতরা। সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটের সিরিজের জন্য এখনও সূচি চূড়ান্ত না হলেও মনে করা হচ্ছে ২৫-৩০ নভেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে ওয়ান-ডে সিরিজ। এরপর তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে ৪-৮ ডিসেম্বর। দ্বিতীয় পিঙ্ক বল টেস্ট খলতে নামার আগে অ্যাডিলেডে একটি পিঙ্ক বল প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেবে কোহলি ব্রিগেড।

কুইন্সল্যান্ড প্রদেশে করোনার কারণে বিদেশ থেকে আসা যে কোনও মানুষের জন্য কড়া আইন বলবৎ রয়েছে। তাই আইপিএল খেলে আসা ভারতীয় এবং অজি ক্রিকেটারের ব্রিসবেনে কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি এখনও স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষ। এখনও বিদেশ থেকে এলে ১৪দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি ধার্য রয়েছে সেখানে। তাই ক্রিকেটারদের কোয়রেন্টাইন পিরিয়ডেই অনুশীলন সারতে হবে। তবে সেক্ষেত্রেও স্থানীয় কুইন্সল্যান্ড প্রশাসনের অনুমতি প্রয়োজন।

প্রাথমিকভাবে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া এবং সাউথ অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছিল। তারা চেয়েছিল দেশে পৌঁছনোর পরেই দুই দল যাতে অনুশীলনে নেমে পড়তে পারে। কিন্তু এই প্রস্তাব একবারেই যুতসই ছিল না ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার। সে কারণেই কোভিড আবহে তারা ভেন্যু বদল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।