‘আমাকে শারীরিক নির্যাতন করতো’

আপডেটঃ ৫:৩৪ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক: নব্বইয়ের দশকের চাহিদাসম্পন্ন নায়িকা মুনমুন। ব্যক্তিগত জীবনে মীর মোশাররফ হোসেন রোবেনের সঙ্গে প্রেমে জড়ান এই নায়িকা। প্রেমের পর তা পরিণয়ে রূপ নেয়। তাদের সংসারে রয়েছে দুই সন্তান। কিন্তু তাদের এই ভালোবাসার সংসার এক যুগ পার না হতেই ভেঙে যায়।

গত কোরবানির ঈদের পরদিন এই দম্পতির তালাক কার্যকর হয়। স্বামী মীর মোশাররফ হোসেন রোবেনের নির্যাতন ও স্বার্থপরতার শিকার হয়ে তাকে তালাক দিয়েছেন বলে জানান নায়িকা মুনমুন।

মুনমুন চলচ্চিত্রে কাজের পাশাপাশি নিয়মিত স্টেজ শো করতেন। স্টেজ শো করতে গিয়ে পরিচয় হয় রোবেনের সঙ্গে। ২০১০ সালে তারা বিয়ে করেন। এ প্রসঙ্গে মুনমুন রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘দেখুন আমরা কিন্তু ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলাম। আমাদের সন্তানও রয়েছে। এই পর্যায় এসে কেউ কী চায় সংসার ভেঙে যাক। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। আমি অনেক সেক্রিফাইজ করেছি। আমাকে শারীরিক নির্যাতনও করতো।’

এর আগে মুনমুন ২০০৩ সালে সিলেটের একজন ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন। ২০০৬ সালে সেই সংসার ভেঙে যায়।
‘টারজান কন্যা’, ‘মৃত্যুর মুখে’, ‘রাজা’, ‘মরণ কামড়’, ‘রানী কেন ডাকাত’, ‘আজকের সন্ত্রাসী’সহ অসংখ্য সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করেন মুনমুন। বর্তমান সময়ের দেশ সেরা নায়ক শাকিব খানের প্রথম ব্যবসাসফল সিনেমার নায়িকাও ছিলেন মুনমুন। সিনেমাটির নাম ‘বিষে ভরা নাগীন’।