ময়ূর-২ এর কারণে দুর্ঘটনা: তদন্ত কমিটি

আপডেটঃ ৩:০৮ অপরাহ্ণ | জুলাই ০৭, ২০২০

সি এন এ প্রতিবেদক: ময়ূর-২ এর কারণে বুড়িগঙ্গায় মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায় উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে নৌপরিহন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটি। এছাড়া, নৌ দুর্ঘটনা এড়াতে কমিটি ২০ দফা সুপারিশ করেছে।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এ প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেন। এ সময় নৌ সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘নৌপরিহন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির ২০ দফা সুপারিশ করেছে। এম ভি ময়ূর-২ ভুলভাবে চালানোর কারণে ধাক্কা লেগে মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে গেছে।’

তদন্ত কমিটি যে সুপারিশ করেছে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা আরও উন্নত করা, কেরানীগঞ্জের চর কালীগঞ্জ ও চর মীরেরবাগ এলাকা থেকে ডকইয়ার্ড অন্যত্র স্থানান্তর, লঞ্চ অলস বসে থাকার ঘাট অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া, ঢাকা নদীবন্দরে ট্রাফিক ইন্সপেক্টরের সংখ্যা বাড়ানো।

গত ২৯ জুন লঞ্চ দুর্ঘটনার দিনই সাত সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের ওই তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়।

গত ২৯ জুন ময়ূর-২ এর ধাক্কায় বুড়িগঙ্গা নদীতে মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই দিন রাতেই নৌপুলিশ সদরঘাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ শামসুল আলম বাদি হয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় অবহেলাজনিত হত্যার অভিযোগ এনে সাতজনের বিরুদ্ধে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা করেন।