বাড়ির মালিকরা ভাড়াটিয়ার সঙ্গে মানবিক আচরণ করুন: সেতুমন্ত্রী

আপডেটঃ ৩:৪০ অপরাহ্ণ | জুলাই ০৪, ২০২০

সি এন এ প্রতিবেদক:রাজধানীতে ভাড়াটিয়াদের সঙ্গে অনেক বাড়িয়াওয়ালার অমানবিক আচরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে বলে মন্তব‌্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আমি বাড়ির মালিকদের অনুরোধ করবো, আপনারা পরিস্থিতি বিবেচনায় একটু সহনশীল হোন, মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করুন।’ শনিবার (৪ জুলাই ) দুপুরে রাজধানীর সংসদ ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবনে আয়োজিত অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই আহ্বান জানান।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘অনেক ভাড়াটিয়ার মালপত্র ছুড়ে ফেলে দেওয়ার মতো সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। অনেক শিক্ষার্থী মেসে থাকছেন। তাদের মালপত্রও ফেলে দেওয়া হয়েছে। সংকটে অনেকের আয় কমেছে। অনেকে হারিয়েছেন চাকরি। কেউ কেউ পরিবার নিয়ে কষ্টে জীবনযাপন করছেন। তবু প্রকাশ করতে পারছেন না। এমন পরিস্থিতিতে আমাদের সমব্যথী হতে হবে।’

করোনা সংকটে ঋণদাতা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি ঋণের কিস্তি বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘ক্ষুদ্র ও ও মাঝারি ঋণ খাতের অধিকাংশ ঋনগ্রহীতা প্রান্তিক ও নিম্ন আয়ের। করোনার আকস্মিক অভিঘাত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর আয় ও জীবনযাপনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। অনেকেই এখন সঞ্চয় ভেঙে চলছেন। কেউ কেউ ঋণের কিস্তি দিতে হিমমিশ খাচ্ছেন। এ সময়ে তাদের ওপর কিস্তি শোধের বাড়তি চাপ জীবনযুদ্ধ থেকে ছিটকে দিতে পারে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার অর্থনীতির প্রতিটি খাতকে চাঙা রাখতে বাজেটে প্রণোদনাসহ নানামুখী উধ্যোগ নিয়েছে। ঋণগ্রস্ত মানুষের এই সময় কিস্তির বাড়তি চাপ আপাতত কিছুদিনের জন্য কমানোর জন‌্য বাংলাদেশ ব্যাংকসহ এনজিও বিষয়ক ব্যুরো ও এসএমই ফাউন্ডেশনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।’ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় নিয়ে সমন্বয় করার আহ্বান জানান তিনি।