মোহাম্মদ হাফিজের করোনা নাটক এবং শাস্তির আশঙ্কা

আপডেটঃ ১:১৪ অপরাহ্ণ | জুন ২৭, ২০২০

ক্রীড়া ডেস্ক: করোনাভাইরাসও হয়ত অনিশ্চয়তায় ভুগবে আসলে কী সেটি মোহাম্মদ হাফিজের শরীরে আক্রমণ করতে পেরেছে কী পারেনি এই নিয়ে। গত সপ্তাহ থেকে চলছে হাফিজের করোনা নিয়ে নাটক। আর নাটকের মঞ্চস্থের শেষে নেমে আসতে পারে হাফিজের জন্য শাস্তির খড়গ।

ঘটনার সূত্রপাত, গত সপ্তাহের মঙ্গলবার থেকে। ইংল্যান্ড সফরের দলে থাকা ২৮ জন ক্রিকেটার এবং ১২ জন স্টাফের করোনা টেস্ট করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সেই পরীক্ষায় মোহাম্মদ হাফিজসহ ১০ জন ক্রিকেটারের করোনা ধরা পড়ে।

তবে ‘মিঃ প্রফেসর’-এর সেই সিদ্ধান্ত একদম পছন্দ হয়নি। আর তাই পরদিন পরিবার নিয়ে আবার করোনা টেস্ট করেন এই ক্রিকেটার। এবার আসে নেগেটিভ। টুইটারে নিজেই সেই তথ্য জানান হাফিজ। হয়ে পড়েন পিসিবির চক্ষুশূল। পিসিবি তাকে ‘ভেরি ডিস্টার্বড’ বলে আখ্যায়িত করে বসেন। এবার শুক্রবার আবার পিসিবির পক্ষ থেকে করোনা টেস্ট করা হয় হাফিজসহ সেই ১০ ক্রিকেটারের।

দুই দিন না যেতেই আবারও করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এলো হাফিজের। আর পুরো বিষয়টি ভালো চোখে নেয়নি পিসিবি। বোর্ডের ডিসিপ্লিনারি কমিটির নিয়ম ভাঙ্গায় শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে হাফিজকে।

বিশেষ করে পিসিবির প্রথম পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসায় হাফিজকে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলে বোর্ড। তবে নিজের করা টেস্টে নেগেটিভ আসায় কোয়ারেন্টাইনে যেতে অস্বীকৃতি জানায় হাফিজ। আর ডিসিপ্লিনারি কমিটির নিয়ম না মেনে নিজের ইচ্ছা পালনের জন্যই শাস্তির খড়গের সম্ভাবনা বেশি।

পিসিবির একটি সূত্র মিডিয়াকে জানিয়েছে, শওকত খানম মেমোরিয়াল হাসপাতালে আগেরবারও টেস্ট করা হেয়ছিল পিসিবি খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তাদের। এবার সেখানে আবারও টেস্ট করা হলো। আর এখানেই, হাফিজের পুনরায় পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

সেই সূত্রটি জানায়, ‘এটা বোর্ডের জন্য খুবই বাজে একটি অভিজ্ঞতা। সবাই খুব আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছে যে, টেস্টের রেজাল্ট কি আসে জানার জন্য। কারণ, এখানে করোনা আক্রান্ত ১০ ক্রিকেটার এবং একজন সাপোর্ট স্টাফ- সবারই টেস্ট করা হয়েছে।’

এছাড়াও পিসিবি জানিয়েছে, শনিবারই তারা আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বিতীয়বার করোনা টেস্টে রিপোর্ট প্রকাশ করবে। আর সেই সূত্রটি জানিয়েছে, শনিবার হয়তো পিসিবি হাফিজের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারে।