যমুনায় নৌকাডুবি: তিনজনের লাশ উদ্ধার নিখোঁজ ৩০

আপডেটঃ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ | মে ২৬, ২০২০

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার এনায়েতপুরের স্থল ইউনিয়নে যমুনা নদীতে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে নৌকা ডুবে গেছে। এ পর্যন্ত নিখোঁজ তিন জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো নিখোঁজ রয়েছেন ৩০ জন।

মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে প্রবল ঘূর্ণাবর্ত ও ঢেউয়ের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে এ নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। নিখোঁজদের উদ্ধারে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অভিযান শুরু করেছেন।

উদ্ধারকৃত লাশের মধ্যে রয়েছে, বেলকুচি উপজেলার গয়নাকান্দি গ্রামের ধানকাটা শ্রমিক পাষান আলী (৬৫) ও টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার সূবর্ণতলী গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে ওয়েল্ডিং মিস্ত্রি শেখ কামাল (৪০)। আর মৃত এক শিশুর পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তার মা-বাবাও নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা গেছে।

স্থল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এনায়েতপুর থেকে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে নৌকাটি চৌহালীর দিকে যাওয়ার পথে স্থলচর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিখোঁজদের উদ্ধারে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা কাজ করছেন।

চৌহালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দেওয়ান মওদুদ আহমেদ নৌকাডুবির ঘটনা শুনেছেন বলে জানান।

চৌহালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এনায়েতপুর থেকে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে নৌকাটি চৌহালীর দিকে যাওয়ার পথে স্থলচর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এক শিশু ও এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনায় চৌহালী উপজেলা লকডাউন ও গণপরিবহন বন্ধ থাকায় স্থানীয় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে একটি দালাল চক্র পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে এনায়েতপুর থানার বেড়িবাঁধ ঘাট থেকে শ্যালো ইঞ্জিন চালিত নৌকায় যাত্রী পারাপার করছে। নৌকায় যমুনা পাড়ি দিয়ে প্রতিদিনই শত শত মানুষ ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ যাচ্ছে।