আঁখি বললেন ছোট্টপুঁটির গল্প (ভিডিও)

আপডেটঃ ১:২৭ অপরাহ্ণ | মে ১৫, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক :পুঁটি বলল, এই কাচের দেয়াল ভেঙে গেলে পানি থাকবে না। আর পানি না থাকলে আমরা মরে যাব। এ কথা শুনে গোল্ড ফিস বলল, ও আচ্ছা তাই নাকি! খুব ভালোতো তা হলে। গোল্ড ফিসের বোধহয় জানা নেই মরে যাওয়া মানে কী! রাত গভীর হলো। ঘরের বাতি নিভিয়ে দিয়ে চলে গেল মানুষেরা। আর একে একে জেগে উঠলো মাছেরা। নুড়ির কাছে গিয়ে মাছগুলো হেইয়ো হেইয়ো বলে ভাঙতে শুরু করলো অ্যাকুরিয়াম। পুঁটি কত করে বুঝানোর চেষ্টা করল কিন্তু কেউ পুটির কথা শুনলে তো!

এই দৃশ্যপট একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের। ৯ মিনিট ব্যাপ্তির এই চলচ্চিত্রের নাম ‘ছোট্ট পুঁটি’। এটি নির্মাণ করেছেন রাহাত কবির। ধারাভাষ্য বর্ণনার মধ্য দিয়ে অ্যাকুরিয়ামে বন্দি ছোট্টপুঁটির গল্প উঠে এসেছে। আর ধারাভাষ্য বর্ণনা করেছেন ছোট পর্দার অভিনেত্রী শারমিন আঁখি। নির্মাতা চাটগাঁ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেয়েছে এটি।

শারমিন আঁখি বলেন—বেঁচে থাকার জন্য আমরা কত কিছুই না করছি। কিন্তু সেই করাটাই আমাদের বেঁচে থাকাকে কখনো কখনো কঠিন করে তুলছে। বেঁচে থাকার সব চেষ্টা কি আমরা বুঝে করছি? নাকি নিজে বাঁচতে গিয়ে বাকিদের বেঁচে থাকাটাও হুমকির মুখে ফেলে দিচ্ছি? আমরা এমনই এক অস্থির সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। তবু তো আমরা আশাবাদি, প্রতিদিন আশায় বুক বাঁধি আর সুন্দর একটা নতুন পৃথিবী গড়ার স্বপ্ন দেখি। এমনটাই দেখা যাবে এই চলচ্চিত্রের গল্পে।

শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা জানিয়ে এ অভিনেত্রী বলেন—পুরো কাজটি হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকে শুট করেছি। অনেক সীমাবদ্ধতা ছিল। সবাইকে দেখার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

মঞ্চে কাজ করার মধ্য দিয়ে অভিনয়ের হাতেখড়ি আঁখির। ২০১১ সালে দেবাশিষ বড়ুয়া দ্বীপের দুটি ধারাবাহিকে কাজ করেন তিনি। ওই বছরই নার্গিস আক্তারের একটি টেলিফিল্মে কাজ করেন। এরপর শৈল্পিক গুণ ও সাবলীল অভিনয় দিয়ে কেড়েছেন দর্শক হৃদয়। নাটক, বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও, টেলিফিল্ম একাধারে সব কিছুতেই কাজ করে যাচ্ছেন এই অভিনেত্রী।

দেখুন: