ভারতে বিষাক্ত গ্যাস লিক হয়ে ৮ জনের মৃত্যু, অসুস্থ বহু মানুষ

আপডেটঃ ১:২৩ অপরাহ্ণ | মে ০৭, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের রাসায়নিক কারখানা থেকে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ায় মৃত্যু হয়েছে এক শিশুসহ ৮ জনের। হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বহু মানুষকে। ঘটনাস্থলে গিয়েছে দমকল, পুলিশের বিশাল বাহিনী ও অ্যাম্বুল্যান্স।

বিশাখাপত্তনমের আরআর বেঙ্কটপুরমের এলজি পলিমারস ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের রাসায়নিক প্ল্যান্টে গ্যাস লিক করায় এলাকার মানুষের মধ্যে চোখ জ্বালা ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দেয় বলে জানিয়েছেন আধিকারিকরা। অসুস্থ হয়ে পড়ায় সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের হাসপাতালে পাঠানো হয়।

রাসায়নিক প্ল্যান্টটির আধিকারিকরা আরও জানিয়েছেন, এলজি পলিমার ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ওই প্লান্ট থেকে যে গ্যাস লিক হচ্ছে তা প্রথম টের পান এলাকার কাছাকাছি থাকা স্থানীয় বাসিন্দারাই। আরআর ভেঙ্কটাপুরাম গ্রামের বাসিন্দারাই জানান যে, তাঁদের চোখ হঠাৎ করে খুব জ্বালা করতে শুরু হয়েছে ও নিশ্বাস-প্রশ্বাসে ভয়ঙ্কর কষ্ট হচ্ছে। এরপরেই অসুস্থ হয়ে পড়া ওই ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গ্যাস লিক হওয়ার খবর টের পাওয়ার পরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। গ্রেটার বিশাখাপত্তনম পুর কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে টুইট করে স্থানীয় এলাকার বাসিন্দাদের স্বাস্থ্যসুরক্ষার স্বার্থে তাঁদের ঘর থেকে বাইরে না আসার অনুরোধ করা হয়।

এ ঘটনায় স্থানীয়দের মোবাইলে তোলা ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দেখা গেছে, তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা এলাকায়। উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে NDRF ও SDRF দল।

এক ভিডিওতে অন্তত শতাধিক মানুষকে রাস্তায় হুড়োহুড়ি করতে দেখা গিয়েছে। শোনা গেছে সাইরেন। যাঁরা অসুস্থ বোধ করেছেন, তাঁদের কোলে করে নিয়ে যেতে দেখা গিয়েছে মাস্ক পরা মানুষজনকে। অ্যাম্বুল্যান্স না-পেয়ে অনেকে ডিভাইডারের উপরই বসে পড়েছেন।

এদিকে উদ্ধারকারীদের ধারণকৃত মোবাইল ভিডিওতে দেখা গেছে ওই এলাকায় কমপক্ষে ১০ জন ব্যক্তি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে রয়েছেন। এর ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।