বোনের মৃত্যু টলাতে পারেনি আকবরকে

আপডেটঃ ২:৫৬ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দেশ থেকে আকবর আলী সব ঠিকঠাক দেখে গিয়েছিলেন। বড় বোন সুস্থ আছেন। যমজ সন্তানের অপেক্ষায় আছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় বিশ্বকাপ মঞ্চেও যখন ছিলেন তখনও সব ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু হুট করে একটি দুর্ঘটনা ঘটে যায় আকবরের জীবনে। তবে ওই দুর্ঘটনায় পথ হারাননি আকবর।

গত ২২ জানুয়ারি যমজ সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে মারা যান আকবরের বড় বোন। ততদিনে যুব বিশ্বকাপের দুই ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে। বোনের মৃত্যুর পরদিনই আকবরদের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ। টিম ম্যানেজম্যান্টের কাছে সেই খবর পৌঁছে গেলেও আকবরের পরিবারের অনুরোধে তাকে সেই খবর জানানো হয়নি। পরদিন ম্যাচ শেষে আকবর পান বোনের মৃত্যর খবর।

এমন খবরে পুরো দলই কান্নায় ভেঙে পড়েছিল। পুরো দলটাই যে এক পরিবার। শোকাবহ সেই ‍মুহূর্ত বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি আকবর নিজেই। পুরো দলকে একসঙ্গে দিয়েছেন বার্তা। সেই বার্তায় শোক পরিণত হয়েছিল শক্তিতে। বোনের মৃত্যুর শোক ভুলে দলকে আগলে রেখে একের পর এক ম্যাচ খেলেছেন আকবর। দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। জিতিয়েছেন বিশ্বকাপ।

যুব দলের সতীর্থ মৃত্যুঞ্জয়ের ভাষ্য,`আকবর চাপা স্বভাবের। নিজের ভেতরে কি চলছে তা বুঝতে দেয়না কাউকে। আপুর মুত্যুর পরও উনি বিশ্বকাপ নিয়ে চিন্তা করছিল।’

নেতৃত্বগুণ এরই মধ্যে আকবরকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। স্বপ্নপূরণের পথে কোনো কিছুই যে তার সামনে বাঁধা হতে পারেনি তা প্রমাণ করেছেন। বোনের মৃত্যু টলাতে পারেনি আকবরের দৃঢ়চেতা মনোবল।