বাসে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় মমতাকে

আপডেটঃ ১০:৫১ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১১, ২০২০

সাভার প্রতিনিধি : ঢাকার ধামরাই উপজেলায় বাসে নারী শ্রমিককে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন আসামি সোহেল ওরফে ফিরোজ।

শনিবার বিকেলে ঢাকা জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দির গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা।

তিনি বলেন, পোশাক শ্রমিক মমতা আক্তারকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত বাসচালক সোহেল ওরফে ফিরোজকে উপজেলার জেঠাইল গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এবং পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন তিনি। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার কাঁঠালিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে কিছু দূরে কাওয়ালীপাড়া-বালিয়া মহাসড়কের পাশে জঙ্গল থেকে মমতার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।