নিকলীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণকালে তিনজনকে জেল-জরিমানা, পাইপসহ শেলু মেশিন ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমান আদালত

আপডেটঃ ৫:১৯ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ০৪, ২০১৯

নিকলী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ কিশোরগঞ্জের নিকলীতে  বুধবার সিংপুর ইউনিয়নের ভাটিভড়াটিয়া গ্রামের ধনু নদী থেকে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকালে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়েছে।
এসময় নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণের অপরাধে ড্রেজারের একহাজার ফুট পাইপ, দুটি শেলু পাম্প মেশিন ধ্বংস করে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে দুটি বালুবাহী বলগেট জব্দসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটক তিনজনের প্রত্যেক্ষকে এক লাখ টাকা করে অর্থ দন্ড ও একমাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং অর্থ অনাদায়ে আরোও এক মাসের জেল জরিমানা করছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামছুদ্দিন মুন্না।
সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, উপজেলার দামপাড়া গ্রামের আব্দুল কুদ্দুছ এর পুত্র আবু কালাম(৩০), আব্দুর রশিদের পুত্র মোঃ কাউসার মিয়া(৩২), ও মোহাম্মদ আলীর পুত্র হুমায়ুন (২৮)।
ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামছুদ্দিন মুন্না ঘটনার সত্যতা স্বীকার এ প্রতিনিধিকে জানান, একটি চক্র দীর্ঘদিন যাবৎ ধনু নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ ও নদীর পাড়ের মাটিকেটে বিক্রি করে আসছিলো। স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ০৫ই নভেম্বর ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১৩ জনকে দুইমাস করে কারাদন্ড দিয়েছিলো এবং ৪ ই ডিসেম্বর বুধবার দ্বিতীয় দফায় একই স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৩ জনকে অর্থ দন্ড সহ জেল জরিমানা করেছেন।