সৈয়দপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৫১ ঘর পুড়ে ছাই

আপডেটঃ ৯:৫৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২১, ২০১৯

নীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের দূর্গামিল ক্যাম্পে ভয়াবহ আগুনে ১৭টি পরিবারের ৫১টি ঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
বুধবার (২০ নভেম্বর)বিকেলের দিকে মোজাম্মেলের বাড়ীর রান্নার চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে তা দ্রুত চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে প্রায় ৭০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি।
খবর পেয়ে সৈয়দপুর, নীলফামারী ও রংপুরের তারাগঞ্জ ফায়ার ও সার্ভিসের ৩টি ইউনিট প্রায় ২ ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই ক্যাম্পের মোজাম্মেলের বাড়ির চুলার আগুন থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। পরে তা আশেপাশের বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। মূহুর্তে পুরো এলাকা আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
অগ্নিকান্ডে মোজাম্মেল, কাল্লু, আরমান, সুজন, আজাদ, মোস্তফা, জাহিদ, সোলেমান কোরেশী, বেচন, শাহাজাদা, মূর্তজা, নয়ন, নেহাল, বিক্কু ও কালার বাড়িসহ ১৭ টি পরিবারের ৫১ ঘরের রক্ষিত আসবাবপত্র, গৃহস্থালী জিনিসপত্র, কাপড়, বিছানাপত্রসহ নগদ ৭ লাখ টাকা পুড়ে যায়।
এতে ১৭টি পরিবারের মোট ৭০ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করেন নীলফামারী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার এনামুল হক। সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন ম্যানেজার মাহমুদুল হাসান একই কথা জানান।
সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার ঢাকা থেকে মুঠোফোনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর খোঁজখবর নিয়েছেন এবং পৌর পরিষদকে সর্বক্ষণ তাদের দেখভাল করার প্রয়োজনীয় খাদ্য, বস্ত্র ও অর্থ দিয়ে সহযোগিতার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। পরবর্তীতের তাদের পূনর্বাসনের জন্য সরকারীভাবে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে বলে তিনি অসহায় মানুষগুলোকে আস্বস্ত করেন।