‘দেখতে চাই কে কে খেলতে যায়, কে কে না যায়’

আপডেটঃ ১০:৪৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২২, ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক : একদিন আগে-পরে একই ইস্যুতে সংবাদ সম্মেলনের কতোটা পার্থক্য? ক্রিকেটাররা সংবাদ সম্মেলন করলেন কোনো উত্তাপ ছাড়ল না।

একদিন পর বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সংবাদ সম্মেলন করলেন।  অথচ উত্তেজনার যেন কমতি নেই। অবশ্য এ উত্তেজনার সৃষ্টি করেছেন ক্রিকেটাররা।  হুট করে ১১ দফা দাবি তুলে ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট ডেকে বসলেন।  মিরপুর একাডেমি মাঠে প্রায় ২০ মিনিটের সংবাদ সম্মেলনে জেগে উঠল ক্রিকেটাঙ্গন।  বোর্ড প্রধান সেসব দাবি নিয়েই আজ মুখ খুললেন।

গতকাল রাতে নাজমুল হাসান পাপন তার কর্পোরেট অফিসে জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন। আজ দুপুরে আবার ক্রিকেটারদের দাবি নিয়ে বোর্ড পরিচালকদের নিয়ে কথা বলেন মিরপুরে। এরপরই আসেন সংবাদ সম্মেলনে।  বিসিবির নির্বাচন ইস্যু বাদে কখনোই ঘন্টাখানেকের সংবাদ সম্মেলন হয়নি।  এবারের সংবাদ সম্মেলন ছাড়িয়ে গেল আগের সব রেকর্ড। পাক্কা ১ ঘন্টা ১০ মিনিট কথা বললেন নাজমুল হাসান।

ক্রিকেটারদের দাবি নিয়ে তার একটাই কথা, ‘ক্রিকেটাররা কেন আমার কাছে আসল না।’ বোর্ড প্রধান সব সময়ই বলেন, তার দরজা সবার জন্য সব সময় খোলা।  ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত, পারিবারিক কিংবা সামাজিক সমস্যা মিটিয়ে দেওয়া নাজমুল হাসান অবাক ক্রিকেটারদের কর্মকান্ডে।  এতো ভালো সম্পর্ক থাকার পরও ক্রিকেটাররা ‘অ্যাভোয়েড’ করলো তা মানতে পারছেন না নাজমুল হাসান।

অবশ্য গণমাধ্যমের সামনে ক্রিকেটারদের দাবি দেওয়াকে ষড়যন্ত্র বলছেন বোর্ড প্রধান।  তার দাবি খুব শীঘ্রই দেশের বিরুদ্ধে যারা কাজ করছেন তাদের মুখোশ উন্মোচন করা হবে,‘ষড়যন্ত্র কারা করছেন তাদের নিয়ে আপনারা মাথা ঘামিয়েন না। এটা খুব শীঘ্রই বের হয়ে আসবে। আমার ধারণা আপনারা জানেন। কারা আপনার কাছে ছবি দিয়ে যায়, কাগজ দিয়ে যায়, আপনারা সবাই সেটা জানেন। কাজেই এটা আপনারা জানেন, জানে না কেবল জনগণ।  চিন্তার কোন কারণ নেই। খুব শিগগিরই যড়যন্ত্রকারীর মুখোশ উন্মোচিত হবে।’

বোর্ড প্রধানের দাবি ক্রিকেটারদের মিসগাইড করা হচ্ছে। হয়তো দুই-একজন সিনিয়র ক্রিকেটার ওতপ্রতভাবে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বাকিরা না জেনেই যোগ দিয়েছেন ধর্মঘটে।  তবে মাঠে ক্রিকেট রাখতে বদ্ধপরিকর নাজমুল হাসান।  আসন্ন ভারত সিরিজের ক্যাম্প ও চলতি জাতীয় লিগের খেলা যথাসময়ে হবে বলে নিশ্চয়তা দিয়েছেন।

ক্রিকেটারদের প্রতি তার কড়া বার্তা, ‘আমি আগে দেখতে চাই কে কে খেলতে যায়, কে কে না যায়।  ক্যাম্পে কে কে আসে? এগুলোতো আগে জানতে হবে।  আমি অবশ্যই আশাবাদী ক্যাম্প চলবে, ভারত সিরিজ হবে।  আমাদের এখানে বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই ক্রিকেটকে ভালোবাসে এবং ক্রিকেটের উন্নয়ন চায়। ’

‘ওদের জন্য আমাদের জন্য দরজা ওপেন। ওদের ফোনও করা হচ্ছে। ওরা ফোন ধরে না। কেটে দেয় কিংবা বন্ধ করে রাখছে।  স্পষ্ট কথা, আমরা একবারও বলছি না যে ওদের দাবি মানা যাবে না বা মানতে পারবো না। কিন্তু যারা দাবি তুলছে তাদের তো আমাদের কাছে আসতে হবে।’ – যোগ করেন নাজমুল হাসান।