বড়াইগ্রামে বিকাশের টাকা প্রতারণার অভিযোগে দুই যুবক আটক ৫ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা উদ্ধার

আপডেটঃ ৬:২৬ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি:বিকাশের ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের নাটক সাজিয়ে প্রতারণার অভিযোগে বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের ডিএসও সহ দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোয়ারী গ্রামের আফাজউদ্দিনের ছেলে বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের ডিএসও সুমন আলী (২৮) ও তার মামাতো ভাই একই উপজেলার মিস্ত্রিপাড়া এলাকার ইউনুস আলীর ছেলে হাসান আলী (২৬)। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের গ্রেফতার ও টাকা উদ্ধারের পর দুপুরে নাটোরের পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং-এ এসব তথ্য জানানো হয়।
প্রেস ব্রিফিংকালে পুলিশসুপার (ভারপ্রাপ্ত) আকরামুল হোসেন এক লিখিত বক্তব্যে জানান যে, গতকাল ১৮ সেপ্টেম্বর লালপুর থানা পুলিশের কাছে সংবাদ আসে যে, উপজেলার চংধুপইল থেকে গোপালপুর যাওয়ার পথে চিরঞ্জীব মমতাজ স্মৃতি সৌধ এলাকায় বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের ডিএসও সুমন আলীর নিকট থেকে অস্ত্রের মুখে বিকাশের ৫লাখ ৮০ হাজার টাকা ও প্রতিষ্ঠানের দুইটি মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়ে গেছে ছিনতাইকারীরা। খবর পেয়ে লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম রেজা সঙ্গীয় ফোর্সসহ তদন্তে নামেন। তদন্তকালে জানতে পারেন বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের ডিএসও সুমন আলী তার মামাতো ভাই হাসানের সাথে যোগসাজসে একটি ছিনতাই ঘটনার নাটক সাজিয়ে বিকাশের টাকা আতœসাত করেছে।
পরে বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের ডিএসও সুমন আলীকে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, টাকাগুলো সে নিজেই ছিনতাইয়ের নাটক করে আতœসাত করেছে এবং সেই টাকাগুলো তার মামাতো ভাই হাসানের কাছে রেখেছে। তার স্বীকারোক্তি অনুসারে বৃহস্পতিবার সকালে বড়াইগ্রাম থানার মিস্ত্রিপাড়া এলাকার ইউনুস আলীর ছেলে হাসানের ঘর থেকে ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা উদ্ধার ও হাসানকে গ্রেফতার করা হয়।