সমুদ্রে ফের ৩ নম্বর সংকেত, বহাল ভূমিধসের শঙ্কাও

আপডেটঃ ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকেই বৃষ্টিতে ভিজছে রাজধানী। থেমে থেমে চলা এ বৃষ্টি আজ (শুক্রবার) সকালেও অব্যাহত রয়েছে। সঙ্গে রয়েছে বাতাসের ঝাপটাও।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, দেশে মৌসুমী বায়ু সক্রিয়। শুধু ঢাকা নয়, এর প্রভাবে সারাদেশে বৃহস্পতিবারের চেয়ে শুক্রবার বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বেশি থাকতে পারে। বৃহস্পতিবার দেশের দুটি অঞ্চল বাদে সব জায়গায় হালকা, মাঝারি, ভারী ও অতি ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে।

এছাড়াও সমুদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। কয়েকদিন আগে সমুদ্র বন্দরে স্থানীয় সংকেত থাকলেও সম্প্রতি ঝড়ো হওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা না থাকায় তা তুলে নেয়া হয়।

আর দেশের কিছু নদী বন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগে ভূমিধস হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। টানা কয়েকদিন ধরেই ভূমিধসের সতর্কবার্তা বহাল রয়েছে। চট্টগ্রামের বিভাগে টানা বৃষ্টির কারণে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে আছে বলেও জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

সমুদ্র বন্দরের সতর্ক সংকেতের বিষয়ে বলা হয়েছে, উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য থাকায় বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরের ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকায় চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিলিমিটারের বেশি) বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধস হতে পারে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, ঢাকা, ফরিদপুর, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখা বলা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে পরবর্তী ৬ ঘণ্টার জন্য ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। সেই সঙ্গে হতে পারে বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি। দক্ষিণ-পূর্ব/দক্ষিণ দিক থেকে ঘণ্টায় ৮ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ভোর ৬টায় তাপমাত্রা ছিল ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং এ সময় বাতাসে আর্দ্রতা ছিল ৯৬ শতাংশ। ভোর ৬টার আগের ২৪ ঘণ্টায় এখানে বৃষ্টিপাত হয়েছে ৩ দশমিক ৯ মিলিমিটার।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সারাদেশের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, বরিশাল, খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

শুক্রবার সূর্য উঠেছে ভোর ৫টা ৪৪ মিনিটে, সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে।