ধর্মপাশায় ২ চুরা কারবারিসহ প্রায় ৫ লাখ টাকার ভারতীয় প্রসাধনী সামগ্রী আটক

আপডেটঃ ১০:৩৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৯, ২০১৯

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:কুরবানীর ঈদকে সামনে রেখে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার ভারতের মেঘালয় পাহাড় সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে প্রতিদিন লাখ-লাখ টাকার ভারতীয় মদ-গাঁজা, গরু, কাঠ, আদাসহ বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী সামগ্রী অবৈধ পথে দেশে আমদানি করতে সক্রিয় রয়েছে কালোবাজারীরা।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে ধর্মপাশা থানা-পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্মপাশা-মোহনগঞ্জ ব্রীজের উপর থেকে একটি কাভার্ট ব্যান দিয়ে অবৈধ পথে পাচারের সময় প্রায় ৫ লাখ টাকার বিভিন্ন ধরনের ভারতীয় প্রসাধনী সামগ্রীসহ দুই চুরাকারবারিকে আটক করেছে পুলিশ।
আটক চুরাকারবারিরা হলেন, শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও গ্রামের আব্দুল আজিজ চৌকিদারের ছেলে টিটু চৌকিদার (৩৬) ও সিলেটের চারদিঘিরপাড় এলাকার জহরলাল দেবনাথের ছেলে সুভাষ দেবনাথ (৩৮)।
এব্যাপারে ধর্মপাশা থানার এসআই জাহাঙ্গীর হোসাইন বাদি হয়ে ওইদিন সন্ধ্যায় আটককৃত দুই চুরাকারবারিকে আসামি করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এসআই জাহাঙ্গীর হোসাইন জানান, ঈদকে সামনে রেখে একটি কালোবাজারী চক্র বেশ কিছুদিন ধরেই ভারত থেকে চুরাই পথে হরলিক্স, বিভিন্ন উন্নত ব্র্যান্ডের তেলসহ বিভিন্ন ধরনের ভারতীয় প্রসাধনী সামগ্রী আমদানি করে গোপনে তারা এ পথ দিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে আসছিল বলে পুলিশের কাছে তথ্য ছিল। আর তখন থেকেই পুলিশ ওই চক্রটিকে মালসহ হাতে নাতে ধরার চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এ অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে উপজেলার মধ্যনগর ট্রলার ঘাট এলাকা থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার থেকে ভারতীয় বিভিন্ন প্রসাধনী সামগ্রী একটি কাভার্ট ব্যানে বোঝাই করে এ পথ দিয়ে ধর্মপাশা-মোহনগঞ্জ ব্রীজ পাড় হয়ে ওই কাভার্ট ব্যান গাড়িটি পাড় হওয়ার সময় আমরা ভারতীয় পণ্য বোঝাই ওই গাড়িটিসহ দুই চুরাকারবারিকে আটক এবং আটককৃত ওইসব প্রসাধনী সামগ্রীর বর্তমান বাজার মূল্য ৪ লাখ ৮৫ হাজার ৪২০ টাকা।