তুরাগে ট্যাক্সিক্যাব : অভিযান চলছে

আপডেটঃ ৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ২২, ২০১৯

সাভার সংবাদদাতা : সাভারের আমিনবাজার সালেহপুর ব্রিজ থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তুরাগ নদীতে পড়ে যাওয়া ট্যাক্সিক্যাবটি উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করছে ফায়ার সার্ভিস।

রোববার দিবাগত রাত ১টা নাগাদ এই উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। তবে এখন পর্যন্ত নদীতে তলিয়ে যাওয়া গাড়িটির কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের মোট ৪টি দল উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, নদীতে তলিয়ে যাওয়া হলুদ রঙ্গের ট্যাক্সিক্যাবটি ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস নামে একটি কোম্পানির যাত্রিবাহী ক্যাব বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিৎ করেছেন ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসের অপর একটি ট্যাক্সিক্যাব এর চালক মোঃ হানিফ।

তিনি জানান, ট্যাক্সিক্যাব’টি ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে সাভারে এসেছিলো। পরে ফিরে যাওয়ার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় গাড়িটি জিয়া (৪০) নামে একজন ট্যাক্সিক্যাবটি চালাচ্ছিলেন।

তবে দুর্ঘটনার সময় গাড়িটিতে কোন যাত্রী ছিলো কিনা এবিষয়ে তিনি কিছু জানাতে পারেননি।

এর আগে রোববার রাত পৌনে ৯টা নাগাদ ট্যাক্সিক্যাবটি সাভার থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিনবাজার সালেহপুর ব্রিজের উপর একটি বাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হাড়িয়ে ব্রিজ থেকে তুরাগ নদীতে পড়ে তলিয়ে যায়। ঘটনার পর জসিম নামে একজন প্রত্যক্ষদর্শী তাৎক্ষণিক বিষয়টি পুলিশের জরুরি সেবা নাম্বার ৯৯৯-এ কল দিয়ে জানালে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।

এবিষয়ে ফায়ার সার্ভিস-৪ এর জোন কমান্ডার আনোয়ারুল হক বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছি। ঢাকা থেকে ফায়ার সার্ভিসের ৫ সদস্যের ডুবুরি দলও এসেছে। তবে নদীতে স্রোত বেশি থাকায় স্পিডবোট আসার পর আমরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেছি, তবে এখন পর্যন্ত নদীতে তলিয়ে যাওয়া ট্যাক্সিক্যাবটি কিংবা এর কোন চালক বা যাত্রীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। অভিযান চলছে।

অন্যদিকে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সাভারের তুরাগ নদীতে তলিয়ে যাওয়া ট্যাক্সিক্যাবটির কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। ঘটনাস্থলে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজুর রহমান ছাড়াও পুলিশ, র‌্যাব ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন।