অসুস্থ শিশুকে হাসপাতালে রেখে পালালেন মা!

আপডেটঃ ৫:৫৯ অপরাহ্ণ | জুলাই ২০, ২০১৯

সাভার সংবাদদাতা :শিশুটির পাশে কত মানুষ! তারপরও ৭ মাসের শিশুটি কাকে যেন খুঁজতে খুঁজতে কান্না করে! সন্তান জন্মের পর পৃথিবীর সব চেয়ে নিরাপদ আশ্রয়স্থল মায়ের কোল। কিন্তু জিম এই পৃথিবীকে চিনতে শেখার আগেই মায়ের স্নেহ থেকে বঞ্চিত হলো। অসুস্থ কোলের বাচ্চাকে হাসপাতালে রেখে তার মা যেন কোথায় চলে গেছে!

সাভারের গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগে ঘটনাটি ঘটেছে। জানা যায়, গত ২৫ জুন অসুস্থ শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করার পরপরই সবার অগোচরে নিরুদ্দেশ হন ওই নারী। যিনি নিজেকে শিশুটির মা বলেই পরিচয় দিয়েছিলেন।

হাসপাতালে ভর্তি করার সময় শিশুটির নাম জিম বলে উল্লেখ করেন ওই মা। নিরুদ্দেশ হওয়ার পর থেকে হাসপাতালটির নার্স, আয়া ও চিকিৎসকরা যার যখন ডিউটি, তিনিই অসুস্থ শিশুটির দেখভাল করছে। বিষয়টি নিয়ে বিপাকে পড়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চতুর্থ তলায় শিশু বিভাগের আট নম্বর বেডে গেলে দেখা মিলবে শিশুকন্যা জিমের। সাত মাস বয়সী শিশুটির পাশে আপন বলতে নেই কেউ!

হাসপাতালটির কতৃপক্ষ জানায়, গত ২৫ জুন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় শিশুটিকে। এসময় শিশুর নাম জিম বলে উল্লেখ করেন মা পরিচয়দানকারী ওই নারী। এছাড়া  বাবার নাম আবুল ও ঠিকানা নয়ারহাট ছাড়া আর কোনো তথ্য দেননি ওই নারী। হাসপাতালে ভর্তির সব কাজ শেষ হওয়ার আগেই বাচ্চাকে বেডে রেখে পালিয়ে যান তিনি। হাসপাতাল তার নামটিও জানতে পারেনি।

পরে শিশু জিমকে রাজধানীর মিরপুরের সমাজ সেবা অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষ তাদের হেফাজতে নিয়ে যায়।

এবিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল হক দীপু জানান, গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে শিশুটিকে ফেলে বাবা-মা পালিয়ে গেলে এ বিষয়ে পুলিশকে অবগত করা হয়। পরে মিরপুরের সমাজ সেবা অধিদপ্তরকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়।

তবে যারাই শিশুকে জিমকে দেখছে তারাই আবেগে জানতে চায়, নিজের চোখের মনিকে রেখে মা কিভাবে থাকছে? নিজের পেটে ধরে যে গুপ্তধনকে আনলো পৃথিবীর আলোতে, সে কোথায় হারালো?