সরকারের সব সেবা পাওয়া যাবে স্মার্টফোনে : মোস্তাফা জব্বার

আপডেটঃ ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০৫, ২০১৯

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :দেশের সব ধরনের সেবা বিশেষ করে সরকারি সব সেবা স্মার্টফোনেই পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, সেদিন আর খুব বেশি দূরে নয়, যেদিন জনগণকে সেবা দেবার মাধ্যম হবে স্মার্টফোন। সরকারি সেবা নেওয়া বা পাওয়ার ক্ষেত্রে ব্যবহার হবে স্মার্টফোন।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) তিন দিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেলা উদ্বোধনকালে মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, ‘বাংলাদেশে ৯ থেকে ১০ কোটি মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্যবহার হয়; তার মাত্র ৩০ ভাগ স্মার্টফোন, কিন্তু আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বাকি জায়গা স্মার্টফোনের দখলে চলে আসবে। তবে শুধু ডিভাইসের দিকে নজর দিলেই হবে না, ডিভাইসের কনটেন্টের দিকেও নজর দিতে হবে। কারণ সব ধরনের ডিভাইস ব্যবহারের ক্ষেত্রে দরকার নিরাপদ ইন্টারনেট। আর নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে পারলেই দেশ আরো এগিয়ে যাবে। সরকার নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে।’

মন্ত্রী আরো জানান, ‘সরকার মোবাইল কেন্দ্রিক সেবার ক্ষেত্রে সবদিকেই ফোকাস দিচ্ছে। বাংলাদেশে তৈরি হবে বিশ্বমানের স্মার্টফোন। সেদিন আর দূরে নয়। এর মধ্যেই অনেক প্রতিষ্ঠান ডিভাইস তৈরি করতে শুরু করেছে। এছাড়াও, বাংলাদেশ ডিভাইস উৎপাদনে যে সুবিধা দেবে যা প্রতিবেশী বা অন্য অনেক দেশ থেকেও পাওয়া যাবে না।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন স্যামসাং বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মিস্টার স্যাংওয়ান ইউন, হুয়াওয়ে টেকনোলজিস বাংলাদেশ লিমিটেডের সেলস ডিরেক্টর জুনিয়র সালাহউদ্দীন সানজি, অপো বাংলাদেশের ব্র্যান্ড হেড মিস্টার আইয়োনো, ডিএক্স টেল লিমিটেডের হেড অব রিটেইল অপারেশন জেএম হাসান সাইফ, ভিভো বাংলাদেশের হেড অব প্রজেক্ট অ্যান্ড অপারেশন মিস্টার অ্যাঙ্গাস, স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিমিটেডের ডিরেক্টর (টেলিকম বিজনেস) সাকিব আরাফাত এবং এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়েছে ‘স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো ২০১৯’। দেশের ব্যবহারকারীদের আধুনিক স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার পরখ করে দেখার ও কেনার সুযোগ করে দিতে এই মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত। প্রতিদিন মেলা চলবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি দ্বাদশ প্রদর্শনী। এবারের মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পাওয়া যাচ্ছে। অংশ নিয়েছে স্যামসাং, হুয়াওয়ে, অপ্পো, শাওমি, ভিভো, মটোরোলা, আইফোন, নকিয়া, ম্যাক্সিমাস, রিয়েলমি, ইউমিডিজি, ডিটেল ছাড়াও সুরভী ইন্টারপ্রাইজ, মোবাইল আউটফিটারস ও বিজয়সহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান।

ব্র্যান্ডগুলো মেলায় বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ও স্মার্ট ডিভাইস প্রদর্শন ও বিক্রি করছে। পাওয়া যাচ্ছে মোবাইল অ্যাকসেসরিজও। মেলায় বেশ কিছু মডেলের স্মার্টফোন উন্মোচনও করা হবে।

এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান জানান, প্রদর্শনী উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ ছাড় ও উপহার দিচ্ছে। দর্শকরা প্রযুক্তির আধুনিক সব স্মার্ট ডিভাইস যাচাই-বাছাই করে দেখতে ও কিনতে পারছেন। এছাড়াও, থাকছে অন্য অনেক আয়োজন।

এবারের মেলার প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে স্যামসাং, হুয়াওয়ে ও অপো। গোল্ড স্পন্সর হিসেবে রয়েছে ডিএক্স টেল ও ভিভো। সিলভার স্পন্সর হিসেবে রয়েছে মটোরোলা। সাইবার সিকিউরিট পার্টনার হিসেরে রয়েছে ক্যাসপারস্কি এবং পার্টনার হিসেবে রয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান এডুমেকার।

মেলায় রয়েছে প্লাটিনাম স্পন্সর প্যাভিলিয়ন তিনটি, গোল্ড স্পন্সর প্যাভিলিয়ন দুটি এবং সিলভার স্পন্সর প্যাভিলিয়ন ১টি। এ ছাড়াও, ২টি প্যাভিলিয়ন, ৪টি মিনি প্যাভেলিয়ন ও ৩টি স্টল রয়েছে। মূল্যছাড়ের পাশাপাশি উপহার, গিফট বক্স, র‌্যাফেল ড্র, সেলফি প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা রেখেছে ব্র্যান্ডগুলো।

মেলায় প্রবেশ মূল্য ২০ টাকা। যা থেকে প্রাপ্ত অর্থ ক্যানসার রোগীর চিকিৎসায় দান করা হবে। এছাড়াও, প্রতিবন্ধী এবং শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন।