বাচ্চাদের ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে, গুলাগুলিতে কৃষক নিহত, গ্রেফতার আটজন।

আপডেটঃ ৫:১১ অপরাহ্ণ | মে ২৭, ২০১৯

 নিকলী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ নিকলীতে ২৬শে মে রবিবার শিশুদের ফুটবল খেলার ঝগড়াকে কেন্দ্র কর দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে খোকন মিয়া (৪৫) নামের এক কৃষক নিহত হয়েছে। নিহত খোকন মিয়া ভাটিভড়াটিয়া গ্রামের মৃতঃ মনসুর আলীর পুত্র। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন আফজাল হোসেন (২০) নামের একযুবক, সে একই গ্রামের আরজু মিয়ার পুত্র। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ভাটিভড়াটিয়া গ্রামে। পক্ষ-প্রতিপক্ষ তারা পরস্পর নিকট আতœীয় বলে জানা যায়।
এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ভাটিভড়াটিয়া গ্রামের তাহের ও দয়ালের লোকজনের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলছে। রবিবার ইফতারের পূর্ব-মুহূর্তে স্থানীয় মাঠে শিশুদের ফুটবল খেলায় শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে তাহেরের পরিবারের লোকজন খোকনের ভাতিজা মারুফকে ধরে নিয়ে যায়। এ খবর পেয়ে খোকনসহ তার পরিবারের লোকজন তাহেরের বাড়িতে গেলে উভয় পক্ষের মাঝে বাকবিতন্ডা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে দুপক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে তাহেরের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে গুলি ছুড়তে থাকে। তাহেরের পুত্র জসীম (৩৫) খোকনের বুকে গুলি চালায় গুরুতর আহত অবস্থায় কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়া পথে খোকন মারা যায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ আরেক যুবক আফজাল হোসেন কে নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
ঘটনার সংবাদ পেয়ে নিকলী থানা পুলিশ ভাটিভড়াটিয়া গ্রামের অবস্থান নেয়। এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এঘটনায় রাতেই ৫ নারীসহ ৮জন কে গ্রেফতার করেছে নিকলী থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা এজহারনামীয় আসামী । তবে এখনও পর্যন্ত কোন আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা যায়নি। এ ব্যাপারে নিতহের বড়ভাই রতন মিয়া বাদী হয়ে নিকলী থানায় আবু তাহেরকে প্রধান আসামী করে মোট ২১ জনসহ ৬ জন কে অজ্ঞাত নামা করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
নিহতের বড়ভাই স্বপন মিয়া (৫০) জানান, এগ্রামে বেশ কয়েকটি লাইসেন্সধারী বন্দুক রয়েছে। বৈধ অস্ত্রধারীদের আধিপত্য রোধ করতে অনেকের হাতে অবৈধ অস্ত্র দেখা যায়। যা থেকে প্রায় সময় জলমহাল ও নদীপথে আধিপত্য তৈরি করতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।
নিকলী থানার অফির্সাস ইনর্চাজ নাসির উদ্দিন ভূইয়া হত্যাকান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে এ প্রতিনিধিকে জানান, এ ব্যাপারে নিহতের বড়ভাই রতন মিয়া একটি হত্যা মামলা করেছে। হত্যাকান্ডে জড়িত এজাহার নামীয় ৫ জন নারীসহ ৮জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।