প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে শ্রেণি শিক্ষিকার মামলা

আপডেটঃ ৬:১৮ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর তুরাগ থানাধীন নিশাত নগরস্থ কামারপাড়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষিকা খুরশিদ জাহানের বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারীর আদালতে মামলাটি করেন একই প্রতিষ্ঠানের শ্রেণি শিক্ষিকা মোসা. শাম্মী আক্তার।  আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) অভিযোগের বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

বাদীর আইনজীবী ফারজানা ইয়াসমিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, বাদী ২০১৩ সালের ১২ নভেম্বর থেকে ওই স্কুলে সহকারী শিক্ষক হিসেবে সুনামের সঙ্গে পাঠদান করে আসছেন।  সম্প্রতি প্রধান শিক্ষিকা বাদীর চাকরি এমপিওভুক্তির জন্য ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন।  বাদী তা দিতে অস্বীকার করায় আসামি বাদীর ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়ার হুমকি প্রদান করেন।  তারই ফলশ্রুতিতে গত ১১ মার্চ প্রধান শিক্ষিকা বাদীর ঠিকানায় মিথ্যা অপবাদ দিয়ে নোটিশ পাঠান।  যেখানে বলা হয়, গত ৯ মার্চ স্কুলে সমাবেশ চলার সময় মোবাইলফোনে কথা বলেন, যা বন্ধ করতে বললে তিনি প্রধান শিক্ষিকার ওপর সকল শিক্ষকের সামনে উত্তেজিত হন।  এ ছাড়া, তিনি পাঠদানকারী শ্রেণিকক্ষে ছাত্রদের জামাই বলে সম্বোধন করেন, যা দৃষ্টিকটূ।  এ ছাড়াও, বাদী বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত।  বিভিন্ন  ক্লাব ও হোটেলে যান, যার প্রমাণ তাদের কাছে আছে।  বিভিন্ন মহল থেকে তারা এ তথ্য পেয়েছেন।  নোটিশে উল্লেখিত মিথ্যা ও মানহানিকর বক্তব্য প্রকাশের কারণে বাদীর চরিত্র সম্পর্কে এলাকার লোকজন ও তার পরিবারের কাছে বাদীর মর্যাদা চরমভাবে ক্ষুণ্ন হয়েছে, যা ২ কোটি টাকার সমপরিমাণ হবে।