কলমাকান্দায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে হত্যা, স্বামী ও শশুর আটক

আপডেটঃ ৫:২৮ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৬, ২০১৯

মোনায়েম খান ,সি এন এ নিউজ ,নেত্রকোনা: নেত্রকোনার কলমাকান্দার কৈলাটী ইউনিয়নের সিধলী পূর্বপাড়ায় যৌতুক না দেয়ার কারনে পারভীনা আক্তার (২৫) নামের এক গৃহবধূকে আজ শুক্রবার ভোরে পিটিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করেছে স্বামী শফিকুল ইসলাম (৪৫)। পুলিশ হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহে স্বামী শফিকুল ইসলাম ও শশুর তোরাব আলীকে(৭০) তাদের বাড়ি থেকে আটক করেছে এবং লাশেল ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
নিহতের ভাই জেলার বারহাট্টার রতœপুর গ্রামের তরিকুল ইসলাম জানান, শফিকুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজন যৌতুক লোভী। পারভীনকে প্রায়শই তারা যৌতুক এনে দিতে চাপ দিতো। ইতিমধ্যে পারভিন এক লাখ টাকা যৌতুক হিসেবে এনেও দিয়েছে তার স্বামীকে। কিন্তু আরো এক লাখ টাকা এনে না দেয়ায় মাঝে মধ্যেই তার স্বামীসহ সংসারের অন্যান্যরাও তাকে মারধর করতো। শুক্রবার ভোরে তার স্বামীর বাড়িতে তাকে অতিরিক্ত পিটিয়েছে বলেই পারভীনের মৃত্যু হয়েছে দাবী করেন তিনি। পারভীনের গলায়, পিটসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
কলমাকান্দা থানার ওসি মো. মাজহারুল করিম জানান, প্রাথমিক অবস্থায় ধারনা করা হচ্ছে তাকে মারপিট করে হত্যা করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর বিস্তারিত বলা যাবে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।