আমিরের জন্য বিশ্বকাপের দরজা এখনো খোলা

আপডেটঃ ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ২৩, ২০১৯

ক্রীড়া ডেস্ক :পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি তার। মোহাম্মদ আমির অবশ্য বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজের দলে আছেন। সেই সিরিজে ভালো কিছু করে বিশ্বকাপে সুযোগ পেতেও পারেন এই পেসার। পাকিস্তানের কোচ মিকি আর্থার ও অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদও বলছেন, আমিরের জন্য বিশ্বকাপের দরজা এখনো পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়নি।

ইংল্যান্ড সিরিজের জন্য সোমবার দেশ ছাড়ার আগে লাহোরে সংবাদ সম্মেলনে সরফরাজ বলেছেন, ‘ইংল্যান্ড সিরিজটা আমিরের জন্য বড় সুযোগ (বিশ্বকাপ দলে ঢোকার)। সে অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করছে, অনুশীলন ক্যাম্পে তার বোলিংয়ে সেটা দেখিয়েছে। গতকাল প্রস্তুতি ম্যাচেও সে ভালো বোলিং করেছে। ইংল্যান্ডে আমরা তাকে সুযোগ দেওয়ার চেষ্টা করব, যাতে সে পারফর্ম করতে পারে। আমাদের পেসারদের মধ্যে ভালো একটা প্রতিযোগিতা হবে। আমরা ছয়জন পেসার নিয়েছি, যাতে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে খেলাতে পারি, কারও ওপর যেন চাপ না পড়ে।’

অধিনায়ক সরফরাজের সঙ্গে একমত কোচ আর্থারও, ‘সে ভালোই দৌড়াচ্ছে, ওর মনোভাব অসাধারণ। গত কয়েক সপ্তাহে সে দারুণ পরিশ্রম করছে। ইংল্যান্ডে সে আমাদের দেখানোর সুযোগ পাবে যে, সে এখনো বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়ার সামর্থ্য রাখে।’

২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে আমিরের একটা স্পেল গড়ে দিয়েছিল ম্যাচের ভাগ্য। এরপর থেকে তিনি সাদা বলের ক্রিকেটে ফর্ম হারিয়ে খুঁজছেন। এই সময়ে ১৪ ওয়ানডেতে ১০১ ওভার বোলিং করে উইকেট পেয়েছেন মাত্র ৫টি।

বিশ্বকাপ দলে তার জায়গা না পাওয়াটা তাই অনুমিতই ছিল। তবে বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি ও পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ভালো কিছু করতে পারলে শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ দলে ঢুকে যেতেও পারেন ২৭ বছর বয়সি পেসার। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত আইসিসির অনুমতি ছাড়াই বিশ্বকাপ দলে পরিবর্তন আনতে পারবে দলগুলো।