পাহারা দিচ্ছিল জালাল, ধর্ষণ করছিল জুয়েল

আপডেটঃ ৬:১২ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৯, ২০১৯

সি এন এ নিউজ,নারায়ণগঞ্জ:নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে জুয়েল মিয়া নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। গত ১৬ এপ্রিল উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের বিবির কান্দী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার সকালে ধর্ষিতার ভাই বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় একটি মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, ১৬ এপ্রিল উপজেলার কালাপাহাড়িয়ার বিবির কান্দী গ্রামের ওই কিশোরীকে একই গ্রামে তার ফুপুর বাড়িতে রেখে তার বাবা-মা বেড়াতে যায়। ঘটনার দিন কোনো এক সময় ওই গ্রামের সাজন মিয়ার ছেলে জুয়েল মিয়া (২২) কল করে ওই কিশোরীকে তার সঙ্গে দেখা করতে বাড়ির বাইরে আসতে বলে। সে (কিশোরী) বাইরে আসা মাত্রই তার মুখ চেপে একই গ্রামের নায়েব আলীর ছেলে জালালের (২৪) সহযোগিতায় একটি ঝোপে নিয়ে যায়। সেখানে জালালের পাহারায় জুয়েল ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে ধর্ষক জুয়েল ও তার সহযোগী জালাল পালিয়ে যায়। বিষয়টি মীমাংসার জন্য চেষ্টা করে তিনদিন পর শুক্রবার সকালে আড়াইহাজার থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করা হয়।

আড়াইহাজার থানা পুলিশের ওসি আক্তার হোসেন জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চলছে।